অবশেষে সেই কোম্পানিকেই ভাড়া করল পাকিস্তান সুপার লিগ


Published: 2021-06-06 16:16:04 BdST, Updated: 2021-08-06 10:27:36 BdST

 

স্পোর্টস লাইভ: অবশেষে সেই কোম্পানিকেই ভাড়া করল পিএসএল। তাছাড়া নাকি তাদের কোন বিকল্প ছিল না। কয়েক দফা পেছানোর পর অবশেষে আগামী ৯ জুন থেকে শুরু হচ্ছে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) ক্রিকেটের ষষ্ঠ আসরের বাকি থাকা ম্যাচগুলো। নিজেদের দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না থাকায়, টুর্নামেন্টের বাকি ২০ ম্যাচ আরব আমিরাতে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এই তথ্য সংশ্লিস্টদের।

এদিকে আরব আমিরাতকে বেছে নেয়ার মাধ্যমে আপাতত অর্ধেক কাজ শেষ হয়েছে পিসিবির। বাকি অর্ধেক কাজ হলো সফলভাবে টুর্নামেন্টের বাকি ম্যাচগুলো আয়োজন করা। আর এ মিশনে তাদের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো নিশ্ছিদ্র জৈব সুরক্ষা বলয়ে টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্ট সকলকে নিরাপদ রাখা। এ কাজটি যথাযথভাবে করার জন্য ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটের পথেই হাঁটল পিসিবি।

২০২০ সালের আইপিএলের পুরোটাই হয়েছিল আরব আমিরাতে। তখন জৈব সুরক্ষা বলয় যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ এবং সকলের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার দায়িত্বটি ‘রেস্ট্রাটা’ নামক এক কোম্পানিকে দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এবার পিসিবিও পুরোপুরি নিশ্চিন্ত থাকার জন্য রেস্ট্রাটার শরণাপন্ন হয়েছে। আইপিএলের ২০২০ সালের আসরে রেস্ট্রাটার ব্যবস্থাপনায় পুরোপুরি সন্তুষ্ট ছিলেন টুর্নামেন্টের খেলোয়াড়, ফ্র্যাঞ্চাইজি ও আয়োজকরা।

তাই পিসিবিও রেস্ট্রাটার সঙ্গে জৈব সুরক্ষা বলয়ের জন্য যোগাযোগ করেছে। পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘বর্তমানে বৈশ্বিক মহামারি চলছে। ক্রিকেটও এর বাইরে নয়। আমরা জানি যে, তাদের (রেস্ট্রাটা) কাছে আমরা নিরাপদ। জৈব সুরক্ষা বলয় নিশ্ছিদ্র রাখতে আমরা সম্ভাব্য সবকিছু করছি।

যতটা সম্ভব সুরক্ষিত রাখতে চাই আমরা।’ আগামী ৯ জুন থেকে শুরু হবে পিএসএলের বাকি থাকা ২০ ম্যাচের খেলা। সবশেষ ঘোষিত সূচি অনুযায়ী ২৪ জুন শেষ হবে এই টুর্নামেন্ট। এরপর ইংল্যান্ড সফরে চলে যাবেন পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা। শেষমেষ এটাই ঠিক হলো।

ঢাকা, ০৬ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।