পাকিস্তানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ


Published: 2018-11-03 18:01:50 BdST, Updated: 2018-11-17 23:50:05 BdST

স্পোর্টস লাইভ: গোলরক্ষক মেহেদি হাসানের বীরত্বে পাকিস্তানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো করলো বাংলাদেশ। নেপালের আনফা কমপ্লেক্স মাঠে ১-১ সমতায় শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা। ম্যাচ গড়ায় সরাসরি টাইব্রেকারে। শেষ মিনিটে মিতুল সরকার বদলির হিসেবে নামেন মেহেদি। সেমিফাইনালেও ভারতের বিপক্ষে জয়ের নায়ক তিনি।

আর ফাইনালের টাইব্রেকারে প্রথম শট মিস হলেও পাকিস্তানের টানা দুইটি শট ফিরিয়ে বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান মেহেদি। পরের তিনটি শটেই বল জালে পাঠায় বাংলাদেশের কিশোররা। পঞ্চম শট মিস করলে শিরোপা উৎসবের অপেক্ষা বাড়ে মাত্র।

পাকিস্তানের শেষ শট প্রতিহত হতেই ৩-২ ব্যবধানে জয় নিশ্চিত হয়। প্রতিযোগিতায় এ নিয়ে দ্বিতীয়তার অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করলো বাংলাদেশ। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে বাংলাদেশ। নেপালের আনফা কমপ্লেক্স মাঠে ম্যাচের ২৫ মিনিটে আত্মঘাতী গোলে লিড নেয় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

কর্নার থেকে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে ডি-বক্সে লাফিয়ে উঠে হেড দেন পাকিস্তানের খেলোয়াড়। আর গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে জড়ায়। কিন্তু লিড ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে সমতায় ফেরে পাকিস্তান।

ডি-বক্সের ডান পাশে অহেতুক ফাউল করে বিপদ ডেকে আনে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের খেলোয়াড়ের পেছনে থেকে লাফিয়ে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে ফাউল হলে পেনাল্টির বাশি বাজান রেফারি। আরেকটু হলে পেনাল্টি শট রুখে দিয়েছিলেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক। গোলপোস্টের ডান পাশে পাকিস্তানের মোহবউল্লাহর নিচু শট গোলরক্ষকের গ্লাভস ছুঁয়ে চলে যায় জালে।

২০১১ সালে প্রথম আসরে পাকিস্তান ও ২০১৫ সালে তৃতীয় আসরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বাংলাদেশ। সেটাই ছিল ছেলেদের বয়সভিত্তিক ফুটবলে বাংলাদেশের প্রথম শিরোপা।

 


ঢাকা, ৩ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।