মদনে কওমি মাদ্রাসা ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ


Published: 2021-01-26 21:16:15 BdST, Updated: 2021-03-03 18:00:49 BdST

নেত্রকোনা লাইভঃ নেত্রকোনার মদন উপজেলার রুদ্রশ্রী গ্রামের (১০) শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করেছে একই গ্রামের প্রভাবশালী প্রতিবেশী জাকিম মিয়া। শিশুকন্যাটি রুদ্রশ্রী বাইতুল কুরআন কওমি মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঘরের দরজার শিকল কেটে শিশুকন্যাটিকে তুলে নিয়ে বাড়ির সামনে মাঠে ধর্ষণ করে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, গতবছর ফরুক মিয়ার ভাতিজি ও কুতুব মিয়ার মেয়েকে সম্ভোজ মিয়ার ছেলে জাকিম এর জন্যে বিয়ের প্রস্তাব দিলে ফরুক মিয়া অসম্মতি জানায় এবং তার ভাতিজিকে অন্যত্র বিয়ে দেয়। ওই সময় জাকিম মিয়া তাকে দেখে নেবে বলে হুমকি দেয়। এরই প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ফরুক মিয়ার মেয়েকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে বাড়ির সামনের মাঠে দেশীয় অস্ত্র (ছুরি) দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

সেই সাথে তাকে শাসিয়ে বলে যদি কারো কাছে প্রকাশ করিস তাহলে তাকে সহ তার পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয় ধর্ষক। পরে তাকে ধর্ষণ করলে শিশুকন্যাটি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। ধর্ষিতার বাবা ফরুক মিয়া রাতে জমিতে সেচের পানি দিয়ে আসার পথে তার মেয়েকে মাঠে পড়ে থাকতে দেখে সেখান থেকে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসে এবং সম্পূর্ণ ঘটনা জানতে পারে।

এ বিষয়ে ধর্ষিতার চাচা কুতুব মিয়া বলেন, গত বছর আমার মেয়ের জন্য জাকিমের পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। আমার ভাই ফরুক মিয়া প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে এবং অন্যত্র বিয়ে দেয়। পরে জাকিম তাকে দেখে নেবে বলে হুমকি দেয়।

ভুক্তোভোগী ওই ছাত্রীর মা ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, আমার এই শিশুকন্যাটির সর্বনাশ করেছে জাকিম। আমরা যদি আইনের আশ্রয় নেই বা কাউকে কিছু বলি তাহলে আমাদেরকে মেরে ফেলা সহ উচ্ছেদ করে দেওয়ার হুমকি দেয়। সেজন্য আমরা থানায় যাওয়ার সাহস পাচ্ছিনা।

ভুক্তোভোগী তাবাসসুম আক্তার ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, প্রতিদিনের মত রাতের খাবার খেয়ে ঘুমানোর পর মধ্যরাতে আমাদের ঘরের দরজা শিকল কেটে জাকিম আমাকে বাড়ির সামনের মাঠে তুলে নিয়ে যায় এবং আমার গলায় ছুরি ধরে হত্যার হুমকি দেয় পরে আমাকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষকের মা তাজমহল বেগম বলেন, ধর্ষণের ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন আমার ছেলে ১০ দিন আগে চট্টগ্রাম কাজের সন্ধানে চলে গেছে।

ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আগামীকাল ঘটনাস্থলে যাব।

মদন থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান এ রকম কোনো ঘটনা আমি শুনিনি এবং কেউ অভিযোগ করেনি অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//কেএইচ//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।