কলেজ শিক্ষককে মারধরের অভিযোগে মামলা


Published: 2020-01-21 13:00:17 BdST, Updated: 2020-02-18 09:40:26 BdST

ময়মনসিংহ লাইভ: কলেজ শিক্ষককে মারধর করার ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসহ ১১ জনকে আসামি করে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের হয়। ময়মনসিংহ মহিলা ডিগ্রি কলেজের খণ্ডকালীন লেকচারার ও ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য হুমায়ুন কবীর (৩০) বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৮ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে ভালুকা থানা পুলিশকে নথিভুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহজাহান কবীর সাজু জানান, বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ভালুকা থানা পুলিশকে এফআইআর করার নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় ৫/৬ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে বাদি পাঁচজন আসামির নাম উল্লেখ করেছেন। তারা হলেন- আবুল কালাম আজাদ (৪৫), ইমরান আলী (৩৩), নাজমুল (২৫), মানিক (২৮) ও আবির (২৫)।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঘটনার বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে মামলার অভিযোগ দেখে পদক্ষেপ নেব।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক তালুকদারকে তুচ্ছ ঘটনায় লাঞ্ছিত করেন মামলার ১ নম্বর আসামি ভালুকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে মুক্তিযোদ্ধা নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্ট করেন। সরলমনা বাদী ওই পোস্টটি শেয়ার করেন। এতে আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৩ ডিসেম্বর রাতে উপজেলার সিডস্টোর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাদিকে পেয়ে ১ নম্বর আসামির নির্দেশে অন্য আসামিরা মারধর করে। এতে বাদির ডান কান মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়।


ঢাকা, ২১ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।