Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | সোমবার, ২০শে মে ২০২৪, ৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com

যথাযোগ্য মর্যাদায় বেরোবিতে শেখ রাসেল দিবস উদযাপন

প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবার ২০২২, ০৫:৪০

কেক কেটে শেখ রাসেলের জন্মদিন উদযাপন

বেরোবি লাইভ: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর-এ যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৯তম জন্মদিন (শেখ রাসেল দিবস ২০২২) পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর, ২০২২) সকাল ৯টায় জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ।

এরপর প্রশাসন ভবনের দক্ষিণ গেট থেকে একটি শোভাযাত্রা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শেখ রাসেল চত্ত্বরে এসে শেষ হয়। শেখ রাসেল চত্ত্বরে স্থাপিত শেখ রাসেলের অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. মজিব উদ্দিন আহমদ। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শেখ রাসেলের ৫৯তম জন্মদিন উপলক্ষে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিশুদের সঙ্গে নিয়ে কেক কাটেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ। পরে শহীদ শেখ রাসেলের স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখতে একাডেমিক ভবন-৪ এর সামনে একটি চারা গাছ রোপণ করেন উপাচার্য।

সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নিয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ বলেন, অবহেলিত, পশ্চাৎপদ এবং অধিকারবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের আলোকিত জীবন গড়ার প্রতীক শেখ রাসেল। তিনি বলেন, ছোট্ট রাসেলের ব্যক্তিত্ব, মানবতাবোধ ও উপস্থিতবুদ্ধির বিষয়গুলো গবেষণার মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম অনেক কিছু জানতে পারবে। উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শিশু শেখ রাসেলের উপর গবেষণা করার জন্য শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসের নৃশংসতম হত্যাকান্ডের মাধ্যমে শিশু শেখ রাসেলের যে পরিণতি ঘটেছিল, এটি যেন পৃথিবীর আর কোনো শিশুর জীবনে না ঘটে। ১৫ আগস্টের ঘাতকদের বিচারের রায় পুরোপুরি কার্যকর হলে ইতিহাসের কলঙ্কের মোচন ঘটবে বলে তিনি তাঁর বক্তৃতায় উল্লেখ করেন।

ট্রেজারার প্রফেসর ড. মজিব উদ্দিন আহমদ বলেন, শেখ রাসেল আজ বেঁচে থাকলে একজন মেধাবী মানুষ হিসেবে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার সংগ্রামে প্রথম সারিতে থাকতেন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের ঘাতক ও তাদের দোসররা এখনো দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে সক্রিয়, এদের ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।

শেখ রাসেল দিবস উদযাপন কমিটি-২০২২ এর আহবায়ক প্রফেসর ড. কমলেশ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে এবং বেরোবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আনোয়ারুল আজিমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ আলমগীর চৌধুরী, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশনস সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আপেল মাহমুদ, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ নুরুজ্জামান খান, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, বেরোবি ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান শামীম, তৃতীয় শ্রেণী কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মাহাবুবুর রহমান প্রমুখ।

এছাড়া জোহর নামাজের পর কেন্দ্রিয় মসজিদে শেখ রাসেলসহ ১৫ আগস্টে নিহত শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ঢাকা, ১৮ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএসআর//এমজেড


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ