ফেসবুকে নারী সেজে প্রেমের ফাঁদ, শ্রীঘরে বেরোবির ৪ শিক্ষার্থী


Published: 2021-06-06 04:02:39 BdST, Updated: 2021-06-18 08:24:57 BdST

 

বেরোবি লাইভ: প্রতারক যত বড়ই হোক সে প্রতারক। কোন না কোন সময় ধরা খেতেই হবে। প্রতারণার জাল যতই বিস্তর হোক সে জাল সহজেই ছিড়ে যায়। প্রতারণার প্রেমের ফাঁদ ফেললেও সে ফাঁদ ধোপে টিকে না। অবশেষে জাল ছিন্নভিন্ন করে যেতে হয় শ্রীঘরে। এমনটি ঘটেছে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি)। ৪ শিক্ষার্থী ফেসবুকে প্রেমের নামে প্রতারণার এমন জাল ফেলেছিলো। কিন্তু সে জাল ছিড়ে গেছে, আর তারা ধরা পড়েছে অবশেষে পুলিশের হাতে।

থানা সূত্রে জানা যায়, আটকরা ফেসবুকে ‘সিনথিয়া’ নামে একটি ভুয়া আইডি খুলে নীলফামারীর ডিমলা এলাকার খোকরুজ্জামান মিয়ার ছেলে আসাদুজ্জামানকে (২৬) প্রেমের ফাঁদে ফেলেন। দীর্ঘদিন ধরে মেয়েলি কণ্ঠে কথাও বলে আসছিলেন। শনিবার দুপুরে তাকে দেখা করার কথা বলে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় ডেকে নিয়ে আসেন।

এরপর ৬-৭ জন মিলে আসাদুজ্জামানকে কৌশলে জিম্মি করে দুপুর ১টার দিকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ার সামনে জঙ্গলের ভেতরে নিয়ে যান। পরে তাকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার পরিবারের কাছে ফোনের মাধ্যমে টাকা দাবি করেন। একপর্যায়ে মারধর করে বিকাশে ২৩ হাজার টাকা এবং একটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে সই নেন।

পরে আসাদুজ্জামানকে ছেড়ে দিলে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে তাজহাট থানা পুলিশ অপহরণকারীদের সর্দারপাড়া থেকে আটক করে। সন্ধ্যায় আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আসাদুজ্জামান রাজধানী ঢাকার সাউথ-ইস্ট ইউনিভার্সিটির ছাত্র। তাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) চার ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (৫ জুন) সন্ধ্যায় রংপুর নগরীর সরদারপাড়া থেকে ৩ জনকে এবং বিকেলে একই এলাকা থেকে আরেকজনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন-নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার উত্তর খড়িবাড়ী এলাকার কলিমুদ্দিন মণ্ডলের ছেলে ও বেরোবির ইংরেজি বিভাগের পঞ্চম ব্যাচের ছাত্র মানিক রহমান সাজু (২৭); পঞ্চগড়ের অটোয়ারী উপজেলার মংলু চন্দ্রের ছেলে ও বেরোবির ইংরেজি বিভাগের পঞ্চম ব্যাচের ছাত্র দুলাল চন্দ্র (২৭); লালমনিহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা এলাকার পুলিন চন্দ্রের ছেলে এবং বেরোবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সপ্তম ব্যাচের ছাত্র জগত পতি (২৬); লালমনিহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার দক্ষিণ জাওরানী এলাকার বারেক মিয়ার ছেলে এবং বেরোবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র শাহ আলম সাদেক (২৬)।

তাজহাট থানার পরিদর্শক আখতারুজ্জামান প্রধান জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে প্রতারণার শিকার ওই যুবক মামলা দায়ের করেছেন। বাকিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান তিনি। পুলিশ জানায়, অনেক দিন ধরে ফেসবুকে সিনথিয়া নামে একটি ফেক আইডি ব্যবহার করে প্রেমের ফাঁদ পেতে যুবকদের ডেকে এনে তাদের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ আদায় করতো রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের ৬-৭ জনের এই চক্রটি।

ওই মামলার বাদী ও সাউথ-ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, ফেসবুকে সিনথিয়া নামে একটি আইডির মাধ্যমে একজনের সঙ্গে এক বছর ধরে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অনেকবার তাদের মধ্যে কথাবার্তাও হয়েছে।

এর সূত্র ধরে শনিবার দুপুরে বাড়ি থেকে তিনি রংপুরে আসেন। এরপর তাকে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটরিয়ায় যেতে বললে তিনি সেখানে যান। কিন্তু সেখানে গিয়ে পূর্বপরিচিত মানিকসহ কয়েকজনকে দেখতে পান।

মানিক অন্যদের সাহায্যে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের পশ্চিম দিকে জঙ্গল ঘেরা একটি স্থানে নিয়ে আটকে রেখে মারপিট করে এবং মোটা অংকের টাকা দাবি করে। বিকাশের মাধ্যমে পরিবারের কাছ থেকে ২৩ হাজার টাকা দিলে বিকেলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এরপর ঘটনাটি পুলিশকে জানান আসাদুজ্জামান। তার বাড়ি নীলফামারী জেলার ডিমলার খগাখড়িবাড়ি গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, মানিক রহমান মেয়েদের কণ্ঠ নকল করে আসাদের সঙ্গে কথা বলতো। কিন্তু আসাদুজ্জামান একবারের জন্য তা বুঝতে পারেনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সবাই তাদের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে। তারা বলেছে এধরনের বেশ কয়েকটি ঘটনা তারা ঘটিয়েছে। তাদের গ্রুপে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আছেন। এরা সকলেই সিন্ডিকেট করে এই ধরনের কাজ করে আসছিল। এতে যা আয় হতো জড়িতদের মাঝে তা ভাগাভাগি করে দেয়া হতো।

পুলিশ আরো জানিয়েছে ওই চক্রটির বেশ কয়েকটি ফেক ফেসবুক আইডি রয়েছে। সবকটিই সুন্দরী মেয়েদের ছবি দিয়ে তৈরী করা হয়েছে। আর ওই আইডি দিয়ে তারা মেয়ে সেজে প্রতারণামূলক প্রেম শুরু করে সুন্দর সুন্দর ছেলেদের সাথে। অনেকেই মেয়েদের কণ্ঠ নকল করে ওই কন্ঠে কথা বলেই জড়িয়ে পড়ে প্রেমের জালে।

পরে অপহরণ করে মুক্তিপন দাবী করে। তারপর ওই যুবককে ডেকে এনে তার কাছে থাকা মোবাইল ও টাকা পয়সা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু লোকলজ্জার ভয়ে কেউ সাধারণত মুখ খুলেন না। তাই ওরা এই সুযোগটি কাজে লাগায়। থাকে ধরা ছোয়ার বাইরে।

ঢাকা, ৫ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।