খুলেছে রাবির হল, ফুল-চকলেট দিয়ে বরণ


Published: 2021-10-17 11:41:59 BdST, Updated: 2021-11-28 04:57:11 BdST

রাবি লাইভ: করোনায় সংক্রামনের কারণে দীর্ঘ দেড় বছরের অধিক সময় বন্ধ থাকার পর আজ রোববার (১৭ অক্টোবর) খুলেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আবাসিক হল। সকাল সাড়ে দশটায় ফুল ও চকলেট দিয়ে আবাসিক শিক্ষার্থীদের আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আজ রবিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল থেকেই হলে আসতে শুরু করে শিক্ষার্থীরা। বেলা বাড়ার সাথে-সাথে বাড়তে শুরু করে শিক্ষার্থীদের আগমনের সংখ্যা। হলগুলোর গেটে চেয়ার-টেবিল নিয়ে বসেছেন হল প্রভোস্ট, হাউজ টিউটররা।

আগত শিক্ষার্থীদের ফুল, চকলেট ও মাস্ক দিয়ে বরণ করে নিচ্ছেন তারা। হলে প্রবেশের সময় চেক করা হচ্ছে শরীরের তাপমাত্রা, করানো হচ্ছে স্যানিটাইজেশন। অন্তত একডোজ টিকা গ্রহণ সাপেক্ষে সকাল ১০টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হলে উঠতে পারছে তারা।
দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় রুমে জমেছে অনেক ময়লা। সেগুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করতে ব্যস্ত আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

অপরদিকে, সকাল সাড়ে ৯টা থেকে শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) টিকার প্রথম/দ্বিতীয় ডোজ প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যেসকল শিক্ষার্থীরা টিকা পায়নি তারা রেজিস্ট্রেশন কার্ড প্রথম ডোজ নিচ্ছে এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের জন্য প্রথম ডোজের প্রমাণপত্র দেখাতে হচ্ছে।

একই সাথে যারা এখনো টিকা গ্রহণের রেজিস্ট্রেশন করেনি তাদের হলে উঠার বা ক্লাস শুরুর আগে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এদিকে, দীর্ঘ দিন পর হলের উঠার আনন্দ প্রকাশ করে শহীদ জিয়াউর রহমান আবাসিক হলের শিক্ষার্থী শাহআলম ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, 'আমরা দেড় বছর পর হলে ফিরতে পেরে অনেক আনন্দিত। যে আনন্দ বলার ভাষা নেই। হল প্রশাসন আমাদের হলে ফিরিয়ে এনেছে এজন্য অনেক কৃতজ্ঞতা জানাই। সেইসাথে আমাদের পড়াশোনা রিকভার করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গ্রীষ্ম ও শীতকালীন ছুটি বাতিল করায় আমাদের জন্য অনেক উপকার হবে।'

শিক্ষার্থীদের আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেওয়ার পূর্বে বক্তব্য রাখছেন ভিসি প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার

 

আরেকজন আবাসিক শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, 'অনেকদিন পর হলে ফিরতে পেরে অনেক ভালো লাগছে। বাহিরের পরিবেশে থেকে আমাদের মানসিক অবসাদ তৈরি হয়ে গিয়েছিলো এখন হলো ফিরে প্রশান্তি পাচ্ছি। তাছাড়া দেড় বছরের যে ধরনেরে ক্ষতি হয়েছে তা পুষিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যথেষ্ট কার্যকরী ভূমিকা রাখবে বলে মনে করি।'

এদিকে শিক্ষার্থীদের আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করার পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বলেন, 'আমরা শিক্ষার্থীদের হলে ফেরাতে পেরে আনন্দিত। তবে শিক্ষার্থীদের অনুরোধ থাকবে তারা যেনও অন্তত একডোজ টিকা নিয়ে হলে প্রবেশ করে এবং একমাস স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে। কোন শিক্ষার্থী যদি করোনা টিকা নিতে চায় তাহলে আমরা সে ব্যবস্থাও রেখেছি। কোন শিক্ষার্থীর যদি করোনা সিমট্রম দেখা দেয় তারা যেনও অবশ্যই মেডিকেল সেন্টারে যোগাযোগ করে। আমরা সেখানে আইসোলেশন এবং নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা রেখেছি। সিটি করপোরেশন থেকে আমাদের ২০ হাজার ডোজ টিকা প্রদান করেছে। আমরা সে হিসেবে শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে পারব।'

তিনি আরো বলেন, 'আবাসিক হলের কাজ কিছুটা অসম্পূর্ণ থেকে গেছে দু চারদিনের মাঝে সেটা সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। শিক্ষার্থীরা যাতে আবারো প্রিয় আঙ্গিনায় ভালো ভাবে থাকতে পারে। সেইসাথে তাদের যে গ্যাপ পরেছে তা পূরণ করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গুরুত্ব দিয়ে দেখবে।'

ঢাকা, ১৭ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//ওএফ//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।