ভিসির নিয়োগ অবৈধ: রাবিতে তদন্ত কমিটির সদস্যরা


Published: 2021-05-08 14:34:39 BdST, Updated: 2021-06-19 19:15:34 BdST

রাবি লাইভ: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বিদায়ী ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহানের দ্বিতীয় মেয়াদের শেষে বিভিন্ন হল-দপ্তরে ১৩৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে নিয়োগ দিয়েছেন। তবে ভিসির অবৈধ নিয়োগের বৈধতার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতদসংক্রান্ত বিষয়ে নিয়োগ কার্যক্রমে অনিয়ম হয়েছে কি না, তা তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ইতিমধ্যে এ বিষয়ে তদন্ত করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপস্থিত হয়েছেন কমিটির সদস্যরা। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সময় তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে উপস্থিত হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য প্রফেসর মুহাম্মদ আলমগীরের নেতৃত্বে তদন্ত করা হবে।

তদন্ত কমিটির সদস্য হিসেবে থাকবেন ইউজিসি সদস্য প্রফেসর আবু তাহের, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব ড. মো. জাকির হোসেন আখন্দ এবং ইউজিসির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শাখার পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান। কমিটিকে আগামী সাতদিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে যান। এরপর তারা ভারপ্রাপ্ত ভিসি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহার কার্যালয়ে যান৷ পৌনে ১২টার দিকে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তদন্ত কমিটির সদস্যরা উপাচার্যের কার্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করছেন।

এর পূর্বে, গত বৃহস্পতিবার (৬ মে) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যলয়ের (রাবি) ভিসি প্রফেসর ড. আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হয়েছে। বিদায়ের আগে নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে অস্থিরতা এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেদিনই দুপুর ১২ টার দিকে মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করলে রাবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ও কর্মচারীরা তাদের ধাওয়া করে।এতে ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যায় মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ঠিক এ মুহূর্তে পুলিশি কড়া পাহারায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়েন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আবদুস সোবহান।

ঢাকা, ৮ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// এআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।