Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | রবিবার, ১৯শে মে ২০২৪, ৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com

কুয়েট-রুয়েট ও চুয়েটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

প্রকাশিত: ১৩ আগষ্ট ২০২২, ১০:২৮

কুয়েট-রুয়েট ও চুয়েটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

লাইভ লাইভ: এবার প্রকৌশল গুচ্ছ (চুয়েট-কুয়েট-রুয়েট) ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। ১১আগস্ট (বৃহস্পতিবার) বিকেলে প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়।
ফলাফল এই লিংকে https://admissionckruet.ac.bd/

তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় সমন্বিত কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সভাপতি অধ্যাপক কে. এম. আজহারুল হাসান ও সদস্য সচিব অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবু ইউসুফ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সদস্য জানান, সম্মিলিতভাবে ‘ক’ গ্রুপে ১-১৪৮২৮ পর্যন্ত এবং ‘খ’ গ্রুপে ১-১০০২ পর্যন্ত একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। মেধাতালিকায় যে যত তম হয়েছে সেটি সম্মিলিতভাবেই তার মেধাস্থান।

মেধাস্থান প্রাপ্তদের তিন প্রকৌশল ভর্তির সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে বিশ্ববিদ্যালয় ও অনলাইনে বিষয়ের পছন্দক্রম দিতে হবে। আগামী ২০আগস্ট থেকে ২৭আগস্ট দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পছন্দক্রম দেওয়া যাবে। পরবর্তীতে তাদের ভর্তির জন্য ডাকা হবে।

চুয়েট-কুয়েট-রুয়েট কেন্দ্রে প্রথম পর্যায়ে ভর্তির জন্য ডাকা হয়েছে ক গ্রুপে (ইঞ্জিনিয়ারিং, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) মেধাক্রম ১-৩৫০০ এবং খ গ্রুপে (ইঞ্জিনিয়ারিং, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা এবং স্থাপত্য বিভাগ) ১-১২০ পর্যন্ত। সশরীরে ভর্তি কার্যক্রম চুয়েট-কুয়েট-রুয়েট কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে ২৮আগস্ট (রোববার)। যে প্রার্থী যে কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে তাকে সেই কেন্দ্র হতেই ভর্তির যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

চলতি বছর ইঞ্জিনিয়ারিং গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)- এ তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট আসন সংখ্যা ৩ হাজার ২৩১টি।

এবার ভর্তি পরীক্ষার জন্য ‘ক’ গ্রুপ (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) এবং ‘খ’ গ্রুপ (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ) মিলিয়ে মোট ভর্তি পরীক্ষার যোগ্য বিবেচিত হয়েছিলেন ২৮হাজার ৩৯৫ জন।

এবারের ভর্তি পরীক্ষায় সংরক্ষিত আসনসহ ৯৩১টি আসনের বিপরীতে চুয়েট কেন্দ্রে মোট ৯ হাজার ৪৭৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭ হাজার ৫৭৬ জন উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিতির হার প্রায় ৮০ (৭৯.৯৩) শতাংশ। অন্যদিকে কুয়েট কেন্দ্রে ৯ হাজার ৪২৩জনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৭ হাজার ২৩৩জন। উপস্থিতির হার ছিল ৭৬.৭৫ শতাংশ। রুয়েট মোট ৯ হজার ৪৮৫ জনের মধ্যে উপস্থিত ছিল ৭ হাজার ৮২৬। উপস্থিতির হার ৮২.৪২ শতাংশ।


ঢাকা, ১২ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ