'মুজিববর্ষের ১ম উপহার 'ই-পাসপোর্ট''


Published: 2020-01-22 17:40:57 BdST, Updated: 2020-09-19 17:45:37 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, জাতির জনক মুজিববর্ষের ১ম উপহারই হলো 'ই-পাসপোর্ট'। অতীতের ন্যায় আর গলাকাটা পাসপোর্ট হবে না। এর ফলে মানুষকে আর ধোঁকায় পড়তে হবে না। দক্ষিণ এশিয়ায় আমরাই ১ম 'ই-পাসপোর্ট' কার্যক্রম শুরু করলাম। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ এখন আরো একধাপ এগিয়ে গেল।

বুধবার বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত ই-পাসপোর্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা জানান।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী জানান, উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমরাও পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন সেবাকে যুগোপযোগী করতে ই-পাসপোর্ট প্রদান কার্যক্রম শুরু করলাম। ই-পাসপোর্টের সঙ্গে ই-গেটও সংযোজিত থাকছে। ই-পাসপোর্ট ও ই-গেট সংযোজিত হলে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট সেবা সহজ, স্বাচ্ছন্দময় ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হবে।

তিনি আরো জানান, বাংলাদেশের জনগণের হাতে হাতে ই-পাসপোর্ট পৌঁছে দেওয়ার মধ্যে দিয়ে জাতির পিতার সোনার বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়নে আরও একটি মাইল ফলক স্পর্শ করা হলো।

শেখ হাসিনা জানান, আওয়ামী লীগ সরকার ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের সব উদ্যোগকে ডিজিটাল কার্যক্রমের আওতায় নিয়ে এসেছে। দেশের অভ্যন্তরে ৬৪টি জেলায় ৬৯টি পাসপোর্ট অফিস, ৩৩টি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট, বিদেশস্থ ৭৫টি বাংলাদেশ মিশনের পাসপোর্ট ও ভিসা উইং-এর মাধ্যমে পাসপোর্ট, ভিসা ও ইমিগ্রেশন সেবাকে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে ই-পাসপোর্ট হস্তান্তর করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান, জার্মান দূতাবাস ঢাকার রাষ্ট্রদূত পিটার।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্য শেষে ই-পাসপোর্ট ভবনের শুভ উদ্বোধন করেন। অধিদফতর ও জার্মান দূতাবাসের পক্ষ হতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা স্মারক উপহার দেওয়া হয়। পরে প্রধানমন্ত্রী পাসপোর্ট অফিসের সকল কার্যক্রম পরিদর্শন করে দেখেন।

ঢাকা, ২২ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।