teletalk.com.bd
thecitybank.com
[email protected] ঢাকা | বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯
teletalk.com.bd
thecitybank.com
প্রথমবার বিজেএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেই সুপারিশপ্রাপ্ত হওয়ার গল্প...

স্নাতকোত্তর শেষ করার আগেই জজ হলেন ববির রাব্বি ইসলাম

Md Akramuzzaman | প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২২ ১১:৪৫

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২২ ১১:৪৫

মো. রাব্বি ইসলাম রনি

মেধা, শ্রম ও যোগ্যতা দিয়ে একে একে সাফল্যের সবগুলো সিঁড়ি ছুঁয়েছেন। স্বপ্ন পূরণের নিজেকে কঠোর অধ্যাবসায়, পরিশ্রীমী হিসাবে গড়ে তুলেছেন। চোখে-মুখে একরাশ স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে গিছেন, পারবো, হ্যাঁ আমিই! বলছি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. রাব্বি ইসলাম রনির কথা। ২০১৪-১৫ সেশনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাশ করেন ২০২০ সালে৷স্নাতক পাশ করেই তিনি বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস ১৪তম (বিজেএস) পরীক্ষায় (প্রথমবার) অংশগ্রহণ করে সহকারী জজ হিসাবে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন। তার এই দীর্ঘ পথচলা কেমন ছিলো জানার চেষ্টা করেছেন ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম- এর বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মো. জাকির হোসেন

ক্যাম্পাসলাইভ: সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর আপনার অনুভূতি কেমন ছিলো?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: অনুভূতিকে আমি আসলে ভাষায় রুপ দেওয়ার মতো ছিল না। শুধু ফলাফল দেখে আনন্দে চিৎকার দিয়ে উঠেছিলাম এবং আমার মা, বাবা, ছোট ভাই কেঁদে দিয়েছিল।

ক্যাম্পাসলাইভ: আপনার ছোটবেলার গল্পগুলো শুনতে চাই। কেমন কেটেছে আপনার শৈশব, কৈশরের দিনগুলো?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: আমার ছেলেবেলা কেটেছে স্কুলে আর খেলার মাঠে। আমাকে পাওয়া যেত স্কুলে অথবা খেলার মাঠে। ক্রিকেটের প্রচন্ড ভক্ত ছিলাম শৈশব থেকেই।পড়াশুনার পাশাপাশি সারাদিনই খেলাধুলা করেছি। রাতে শরীর ক্লান্ত থাকায় রাত জেগে কখনো পড়তে পারিনি। শৈশবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন হলো বন্ধু নির্বাচন। যেটা আমার বিশ্ববিদ্যালয় জীবনেও কাজে লেগেছে। আমি ভাগ্যবান কারণ শৈশব হতেই আমার দারুণ কিছু বন্ধু আছে।

ক্যাম্পাসলাইভ: আপনার কাছে সাফল্যের মূলমন্ত্র কি?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: সততা ও মানুষকে না ঠকানো। পাশাপাশি আমি বিশ্বাস করি আল্লাহর রহমত ছাড়া কিছুই সম্ভব না। আল্লাহর উপর ভরসা রাখুন, অনুগত হন। সফলতা আসবেই।

ক্যাম্পাসলাইভ: জাজ হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন কবে থেকে?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: ৭ম সেমিস্টারে যখন থেকে মাননীয় জেলা জজ মোঃ আবু শামীম আজাদ স্যারকে দেখি ও পরিচিত হই তখন থেকেই জাজ হওয়ার স্বপ্ন দেখি।

ক্যাম্পাসলাইভ: আজকের এই অবস্থানে পৌঁছাতে কাদের অবদান ও অনুপ্রেরণা সবচেয়ে বেশি ছিল?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: সবারই কম বেশি অবদান আছে। সবার কাছেই আমি ঋণী। বিশেষ করে বলতে গেলে আমার বাবা-মা, ছোট ভাই, নূরুন নাজনীন আপু (সহকারী জজ/ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট), এস. এম. মাহফুজ আলম স্যার (সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট), আমার ডিপার্টমেন্টের শিক্ষকমন্ডলী, আমার জীবনের সকল শিক্ষক যাদের কাছে অনেক কিছু শিখেছি। এছাড়া যারা আমার পরীক্ষার প্রস্তুতিতে এবং থাকা, যাতায়তে সাহায্য করেছে সেই সকল বন্ধুদের প্রতি কৃতজ্ঞ।

ক্যাম্পাসলাইভ: পড়াশোনার পাশাপাশি আর কি-কি করতে হবে বলে মনে করেন?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: খেলাধুলা করতে হবে, সৎ থাকতে হবে,ভালো কাজ করতে হবে, অসহায় ও দুঃখী মানুষদের পাশে থাকতে হবে এবং তাদের সাহায্য করতে হবে।

ক্যাম্পাসলাইভ: যারা পরবর্তীতে পরীক্ষা দিবে তাদের প্রস্তুতি কিভাবে নেওয়া উচিত বলে আপনি মনে করেন?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: পরীক্ষার প্রস্তুতি অত্যন্ত পরিকল্পিত হতে হবে। পরিকল্পনা নিজের সুবিধা মত করতে হবে। নিয়মিত পড়াশুনা করতে হবে। স্যারদের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।ডিপার্টমেন্টের পরীক্ষায় ভালো করতে হবে। যারা সফল হয়েছেন তাদের পরামর্শ নিতে হবে।

ক্যাম্পাসলাইভ: লিখিত এবং ভাইভাতে ভালো করতে করণীয় কি?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: লিখিত পরীক্ষায় ভালো করতে হলে মূল আইনের পাশাপাশি কিছু বই পড়তে হবে। এ ধরণের বইগুলো এমনিতেই ডিপার্টমেন্টে পড়ানো হয়। মূল আইন ভালোভাবে পড়তে হবে। সব পরীক্ষা খুব ভালো দিতে না পারলেও কোন পরীক্ষা খারাপ দেয়া যাবে না। আপনি যে বিষয় ভালো পারেন সে বিষয় সর্বোচ্চ নম্বর তুলতে হবে। ভাইভা আসলে ভাগ্যের বিষয়। আগের প্রস্তুতিই এখানে কাজে লাগবে। লিখিত পরীক্ষায় ভালো নম্বর তুলতে পারলে নিজেকে অনেকটা এগিয়ে রাখা যায়।

ক্যাম্পাসলাইভ: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে কি স্বপ্ন দেখেন?

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক মানের হোক। শিক্ষার্থীরা ছড়িয়ে পড়ুক বিশ্বের সর্বত্র। সবাই যেনো গর্ব করে বলতে পারি যে আমরা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

ক্যাম্পাসলাইভ: আমাদেরকে আপনার মূল্যবান সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

মো. রাব্বি ইসলাম রনি: আপনাকে এবং ক্যাম্পাসলাইভ পরিবারকে ধন্যবাদ। এত সুন্দর একটি প্রোগ্রামের জন্য।

ঢাকা, ১৭ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড




আপনার মূল্যবান মতামত দিন: