যুক্তরাষ্ট্রে মোদির বিরুদ্ধে মামলা যে কারণে


Published: 2019-09-22 22:20:28 BdST, Updated: 2019-10-21 16:39:19 BdST

লাইভ ডেস্কঃ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে মামলা টুকে দিয়েছেন দুই মার্কিনী। তাদের ভাষ্য মোদির হাত রক্তে রঞ্জিত। তিনি মানবতার দুশমন। তিনি মানবতার জন্যে হুমকি। তার যথাযথ শাস্তিও দাবী করেছেন অনেকেই।

কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন কাশ্মীর বংশোদ্ভূত দুই মার্কিন নাগরিক। হিউস্টনে নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে বিচ্ছিন্নতাবাদী শিখ গ্রুপ এবং পাকিস্তানিরা বিক্ষোভ করার পরিকল্পনা করছেন বলে জানা গেছে।

নয়াদিল্লি কর্তৃপক্ষ প্রধানমন্ত্রী মোদির নিরাপত্তা নিয়ে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে। তারা এনিযে বিভিন্ন কৌশলও অবলম্বন করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টন ক্রনিকলের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৭৩ পৃষ্ঠার মামলায় খলিস্তানি রেফারেন্ডাম ফ্রন্টের দুই সদস্যের অভিযোগ, কাশ্মীরে অমানবিক অত্যাচার চালিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল কনওয়াল জিত্ সিং ধিলন।

৩৭০ ধারা বাতিলের পরই এই অত্যাচার চালানো হয় বলে অভিযোগ কাশ্মীর বংশোদ্ভূত মার্কিনীদের। ‘দ্য টরচিউর ভিকটিম প্রটেকশন অ্যাক্ট-১৯৯১’ অনুযায়ী এই মামলা করা হয়েছে।

এতে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে বিদেশির বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এখন দেখার বিষয় মামলাটি কিভাবে পরিচালিত হবে। এর আইনজীবিই বা কে হবেন।—ইন্ডিয়া টুডে।

ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।