সেহরি খেয়ে ঘুমেই আইসোলেশনে থাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু!


Published: 2020-05-18 20:53:36 BdST, Updated: 2020-08-05 13:00:08 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : তিন দিন আগে ভারত থেকে ফিরেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী অনন্যা কবির রশিদ। বাসায ফিরলেও তিনি বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকতে পারেননি। আলাদাভাবে আইসোলেশনে থাকতে হয়েছে তাকে। রোববার রাতে সেহরি খেয়ে ঘুমাতে গিয়েছিলেন অনন্যা। সেই ঘুমেই তিনি চলে গেছেন না ফেরার দেশে। স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছেন অনন্যার। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

অন্যানা রশিদ পাঞ্জাবের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত ছিলেন। দীর্ঘ পাঁচ মাস পরে গত ১৫ মে দেশে ফিরেছিলেন তিনি। দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউনের সিনিয়র রিপোর্টার হুমায়ুন কবির ভুইয়া মেয়ে অন্যন্যা কবির রশিদ সোমবার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় ব্রেইন স্ট্রোক করে মারা যান।

এদিকে দেশে ফেরার পরে অনন্যার হোম কোয়ারেন্টাইন বিষয়ে বাবা সাংবাদিক হুমায়ুন কবির ফেসবুক পোস্টে লিখেছিলেন,‘করোনার নির্মমতা কাল মেয়েটা দীর্ঘ ৫ মাস পর ভারতের পাঞ্জাব থেকে ফিরলো।

ফিরেই ওর ঘরে ঢুকে গেল ১৪ দিনের জন্য। ওর মা, ভাই ও আমি দূর থেকে দেখলাম। দীর্ঘ ভ্রমণ সত্ত্বেও গোলাপী সালোয়ার কামিজে বেশ স্নিগ্ধ লাগছিলো কন্যাকে।

ওকে একবার স্পর্শও করলাম না কেও আমরা। অথচ, অন্যান্য সময় ওর আসার দিনে ঈদের আনন্দ হয়। সবাই একসাথে গল্প, বোন ও ভাইয়ের গল্প, মেয়ে ও মার গল্প, মেয়ে ও বাবার গল্প, এবং মেয়ের উচ্চ কণ্ঠে শাসানো। আর, ভালো খাওয়াদাওয়া। এবার, এসব কিছুই হচ্ছে না। ব্যাপার না। দুঃসময় আসে, আবার চলেও যায়।,

ঢাকা, ১৮ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।