Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | রবিবার, ১৯শে মে ২০২৪, ৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com

স্বাধীনতা রক্ষা করাই হোক উদযাপনের মূলমন্ত্র

প্রকাশিত: ২৭ মার্চ ২০২৩, ০৪:২৪

তারণ্যের চোখে স্বাধীনতা ও আগামীর বাংলাদেশ

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস। হাঁটি হাঁটি পা পা করে ২০২৩ সালের ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫২ বছর পূর্ণ হয়েছে। স্বাধীনতা দিবস আজও তরুণ প্রজন্মের কাছে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে গর্বিত জাতি ৫১তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্‌যাপন করছে।

দীর্ঘ নয় মাসের সংগ্রামের ফসল আমাদের স্বাধীনতা। স্বাধীনতা দিবস আজও তরুণ প্রজন্মের কাছে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। প্রেরণা যোগায় নিষ্ঠার পথে নির্ভীক যোদ্ধা হওয়ার। শুধু একটি দিবস হিসেবে নয়, এর বর্ণচ্ছটায় বদলে যায় জীবনের গতিপথ, সাহস যোগায় নতুন শপথ নেওয়ার। আর এ কারণেই স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্য এত বেশি। তারুণ্যের কাছে স্বাধীনতা ও আগামীর বাংলাদেশ নিয়ে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মতামত তুলে ধরেছেন ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এর বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মো. জাকির হোসেন

"স্বাধীনতা আমার অহংকার"

❝স্বাধীনতা তুমি আমার স্বাধীনতা
তুমি জনতার গৌরব গাঁথা
লাখো জনতার হৃদয়বিদারক
স্মৃতিকথা তুমি স্বাধীনতা❞

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ সারারাত নিরস্ত্র ঘুমন্ত বাঙালির উপর হত্যাকাণ্ড চালানোর পর ২৬ মার্চ -এর প্রথম প্রহরে অ্যারেস্ট হওয়ার পূর্বেই যুদ্ধের জন্য আরও একবার বাঙালি কে আহবান করে যান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। দিয়ে যান স্বাধীনতার ঘোষণা। পশ্চিম পাকিস্তানের শোষণের থেকে নিজেদের মুক্ত করার জন্য নিজেদের স্বতন্ত্রতা রক্ষার জন্য বাঙালি সেদিন গর্জে উঠেছিলো। দীর্ঘ নয়মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ,,লাখো শহীদের প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের এই স্বাধীনতা৷
মেহজাবীন নওরোজ প্রীতি
নয় মাস অতর্কিত হামলার অবসানে এ দেশ যখন স্বাধীন হয় তখন এ দেশ ছিলো অর্থনৈতিক ভাবে পঙ্গু এবং অনেকাংশেই মেধা শূন্য। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু এই দেশকে পুনরায় গড়ার দায়ভার নিজের হাতে তুলে নেন। এবং শেষ নি:শ্বাস অবধি জনগণের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। তারই সুযোগ্য কন্যা আজকের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে আমাদের এই দেশ আজ গৌরবের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে। স্বাধীনতা দিবসে আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান ভালোভাবেই অনুধাবন করতে পারি। দেশের প্রতি আমাদের ভালোবাসা বৃদ্ধি পায়। এ-দিন আমাদের গৌরবমন্ডিন স্মৃতিচারনের দিন,আমাদের অহংকারের দিন।

মেহজাবীন নওরোজ প্রীতি
শিক্ষার্থী, লোক প্রশাসন বিভাগ।

"স্বাধীনতার তাৎপর্য তরুণদের ধারণ করতে হবে"

স্বাধীনতা একটা জাতির সবচেয়ে বড় পাওয়া। যে স্বাধীনতা অর্জনের পিছনে রয়েছে লাখো শহীদের রক্তে লেখা ঐতিহাসিক পটভূমি। দেশকে পরাশক্তির হাত থেকে মুক্ত করাসহ সর্বসাধারণের সবরকম সুযোগ সুবিধা যে স্বাধীনতার উদ্দেশ্য ছিল, স্বাধীনতা পরবর্তী ৫২ বছর পরেও কি আমরা তা অর্জন করতে পেরেছি? স্বাধীনতা পরবর্তী এই দীর্ঘ সময়ে দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন হয়েছে এটা অনস্বীকার্য। বিশেষত উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মেলাতে গিয়ে দেশের বিভিন্ন খাতকে ডিজিটাল করা হয়েছে। তবে দেশের কিছু গুরুত্বপূর্ণ খাতে এখনো দুর্নীতি রয়েছে। যেখানে গত কয়েক বছরে এর পরিমাণ বীজগাণিতিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। চিকিৎসা এবং শিক্ষা খাতের দুর্নীতি কোন ভাবেই চোখের আড়াল করা সম্ভব নয়। এর মাঝে দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থার সাথে তাল মেলাতে গিয়ে সর্বসাধারণ আজ বেতালে পড়েছে।
আবু তাহের

আর এর প্রভাব দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে সবচেয়ে বেশি। মধ্যবিত্তের ছেলেমেয়েরা না পাড়ছে লেখাপড়া চালিয়ে নিতে না পাড়ছে তা ছাড়তে। আর তাদের বাবা মা তো নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে।যাহোক, যে দেশের দুর্নীতি দমন দুর্নীতির দূর্নীতির ছয়লাব সে দেশে স্বাধীনতার স্বাদ পেতে হলে সরকারের পাশাপাশি জনসাধারণকে বিশেষ ভাবে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে৷ তরূণরাই পাড়ে আগামীর সুন্দর পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে৷ তবেই দুর্নীতিমুক্ত সেই দূর্নীতিমুক্ত, শোষণমুক্ত স্বপ্নের সোনালী বাংলা গড়া সম্ভব হবে৷

আবু তাহের
শিক্ষার্থী, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ।

"স্বাধীনতার মূল মন্ত্র আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ"

দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের ফসল স্বাধীনতা। এটি অর্জনের জন‍্য সীমাহীন ত্যাগ-তিতিক্ষা করতে হয়েছে। ঝরাতে হয়েছে তাজা রক্ত। দিতে হয়েছে প্রাণ। অবশেষে অর্জিত হয় স্বাধীনতা নামক রক্তিম সূর্য। আর এই সূর্য উদয়ের কান্ডারি ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে আমরা পেয়েছি স্বাধীন একটি লাল-সবুজের পতাকা৷জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা - স্মার্ট বাংলাদেশে রূপান্তরিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন৷
সুস্মিতা দত্ত অথৈ

সেই লক্ষ্যে পৌঁছায়তে স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট অর্থনীতি, স্মার্ট সরকার, স্মার্ট সমাজ এই চারটি ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। তাহলে স্বাধীনতার এই অর্জন সবখানে প্রবহমান ও বাস্তবায়িত হবে৷

সুস্মিতা দত্ত অথৈ
শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ।

"স্বাধীনতার মহিমায় উজ্জীবিত হোক তারুণ্য"

"পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর কাছ থেকে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জন করা বাংলাদেশ আজ স্বাধীনতার ৫৩ বছরে পদার্পণ করলো। এ আনন্দঘন মুহূর্তে স্বাধীনতার ঢেকুর তুললেও বাংলার মানুষের চোখে মুখে দেখা যায় বিষাদের ছায়া। স্বাধীনতার ৫৩ বছরে এসেও মানুষ কালোবাজারি, সিন্ডিকেটের হাতে বন্দী। দুর্নীতিবাজ, লুটতরাজ, ধর্ষণ, মারামারি, খুন লেগেই আছে। দ্রব্য মূল্যের ঊর্ধ্বগামীতার সাথে মানুষের আয় যেন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন। থাকতে হচ্ছে অর্ধাহারে-অনাহারে।
সোহেল রানা

বাংলাদেশ সরকারের কাছে আহ্বান, খুব দ্রুতই সকল সমস্যার সমাধান করে দেশের সর্বস্তরের মানুষের মুখে হাসি ফুটাবে। আমরা চাই, স্বাধীনতার আমেজ ছড়িয়ে পরুক প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে তৈরি হোক মুক্তচিন্তা ধারার মানুষ। গড়ে উঠুক অসাম্প্রদায়িকতার বাংলাদেশ। বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাড়াক, এই সোনার বাংলা।"

সোহেল রানা
শিক্ষার্থী, বাংলা বিভাগ।

"স্বাধীনতা রক্ষা করাই হোক উদযাপনের মূলমন্ত্র"

দীর্ঘ নয় মাসের সংগ্রামের ফসল আমাদের স্বাধীনতা। স্বাধীনতা দিবস আজও তরুণ প্রজন্মের কাছে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। আমাদের জাতীয় জীবনে এ দিনটির প্রধান তাৎপর্য হচ্ছে এ দিন সমগ্র দেশবাসীর বহুকাল লালিত মুক্তি ও সংগ্রামের অঙ্গীকারে ভাস্বর। এই দিবসটি দারিদ্র্য, সামাজিক ও অর্থনৈতিক বৈষম্য দূর করে। কিন্তু বর্তমান সময়ে শহীদের প্রাণের বিনিময়ে কষ্টার্জিত সেই স্বাধীনতার অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে কিছু সন্ত্রাসবাদ, অপরাজনীতি, দুর্নীতি সহিংসতার অশুভ ছোবল যা আমাদের দেশটাকে আরও পিছে নিয়ে যেতে চাইতেছে।
মো. আশিকুল ইসলাম

আমরা চেয়েছিলাম স্বাধীনতা, মুক্তি, মর্যাদা, সাম্য, ন্যায়বিচার। যখন আমরা স্বাধীনতার আসল সৌন্দর্যে উজ্জীবিত হবো তখন রক্ষা হবে আমাদের সত্যিকারের স্বাধীনতা। এই দেশ বঙ্গবন্ধুর, এ দেশ বাঙালির, এ দেশ আমার আপনার সবার। তাই দেশের উন্নয়নে সকলকেই দেশপ্রেমী হয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করতে হবে।

মো. আশিকুল ইসলাম
শিক্ষার্থী, মার্কেটিং বিভাগ।

ঢাকা, ২৬ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ