ইবির হলের খাবারে শামুুক, শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ


Published: 2021-10-22 20:35:02 BdST, Updated: 2021-11-28 05:01:51 BdST

ইবি লাইভ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের খাবারে সকালের খাবারে শামুক পাওয়া গেছে। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকালে হলের ডাইনিংয়ে খেতে গেলে খিচুড়িতে শামুক পেয়েছেন এক শিক্ষার্থী। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন শিক্ষার্থীরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও চলছে নানা আলোচনা সমালোচনা।

আবাসিক হলগুলোর খাবারের মান নিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। পঁচা-বাসী খাবার দেওয়ারও অভিযোগ রয়েছে। এতে অনেক সময় শিক্ষার্থীরা পেটের সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন।

তাই হলের চেয়ে তুলনামূলক খরচ বেশি হলেও বিভিন্ন হোটেলে খাবার গ্রহণ করেন ছাত্রীরা। বর্তমানে হোটেল মালিকরা খাবারের মূল্য আরো বাড়িয়েছে। এতে শিক্ষার্থীরা পুরো সন্তুষ্ট না হলেও দুধের সাধ ঘোলে মেটানোর মত হয়। আবার কেউ হলের কক্ষে রান্না করে খান। এতে খাবারের মানও সন্তুষ্টজনক হয়, খরচও বাঁচে।

এদিকে করোনা মহামারির কারণে দেড় বছর বন্ধ থাকার পর গত ৯ অক্টোবর বিদ্যালয়ের সব আবাসিক হল খুলে দেওয়া হয়। সম্প্রতি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ও দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে মাসে ৩০টি মিল (সকালের মিল ব্যতীত) খাওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হলের এক আবাসিক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, ‘হলের খাবার নিয়ে অভিযোগ করেও তেমন লাভ হয় না। আবার হলে ৩০ মিল বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। হলের খাবার খেয়ে প্রায় পেটে সমস্যা হয়। খাবারের মান নিয়মিত তদারকি করা হয় না। যেদিন কেউ তদারকিতে আসেন, তখন তাদের জন্য স্পেশাল রেসিপি করা হয়।’

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. নিলুফার বানু বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। বিষয়টির খোঁজ নিতে একজন হাউজ টিউটরকে পাঠিয়েছি। ডাইনিং ম্যানেজারকেও সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। কিভাবে আরও উন্নত খাবার নিশ্চিত করা যায় সে বিষয়ে আমরা সামনের মিটিংয়ে আলোচনা করবো।’

ঢাকা, ২২ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।