প্রশ্নপত্র ফাঁস : যেভাবে কোটিপতি স্কুলশিক্ষকের ছেলে হাফিজুর!


Published: 2018-11-03 12:53:26 BdST, Updated: 2018-11-17 23:47:51 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : হাফিজুর রহমান। চাঁপাইনবাবগঞ্জের স্কুলশিক্ষকের ছেলে তিনি। পৈতৃক সম্পত্তি বলতে কিছুই নেই। কিন্তু তার ব্যাংক একাউন্টে কোটি কোটি টাকার লেনদেন হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিসহ নানা নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের মাধ্যমে মাত্র ৩ বছরেই তিনি কোটিপতি হয়ে গেছেন। নিজের ভাইকেও তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করেছেন প্রশ্নপত্র ফাঁসের মাধ্যমে। সম্প্রতি হাফিজুর গ্রেফতার হওয়ার পর এসব তথ্য জানা গেছে। নারী কেলেঙ্কারির কারণে বিমানবাহিনী থেকে চাকরি হারানোর পর হাফিজুর চাকরি নেন জনতা ব্যাংকে।

সিআইডির কর্মকর্তারা বলছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির অভিযোগে প্রায় ৪০ জনকে গ্রেফরের পর হাফিজুরের নাম পাওয়া যায়। গত ২৮ অক্টোবর হাফিজুরকে গ্রেফতার করে সিআইডি। তিন দিন রিমান্ডে থাকার পর শুক্রবার তিনি ঢাকার মহানগর হাকিমের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হাফিজুর বলেন, বিমানবাহিনীর চাকরি ছেড়ে ২০১৪ সালে তিনি জনতা ব্যাংকে যোগ দেন। পরিচয় হয় মোস্তফা কামালের সঙ্গে। ২০১৫ সালে মোস্তফার সঙ্গে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ পরীক্ষায় প্রথম জালিয়াতি করেন হাফিজুর। ২০১৬ সালে গুদামরক্ষক পদে চারজনের কাছ থেকে সাড়ে ১৫ লাখ টাকায় নিয়োগ পাইয়ে দেন। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি। একের পর বিভিন্ন ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়ে যান তিনি। ২০১৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসেও যুক্ত হন তিনি। গত বছরের ২০ ডিসেম্বর হাফিজুরের বিরুদ্ধে নিপীড়নের অভিযোগ তুলে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন জনতা ব্যাংকেরই এক নারী কর্মকর্তা। ওই মামলায় হাফিজুর গ্রেপ্তার হলে কর্তৃপক্ষ তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

হাফিজুরের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জে, বাবা স্কুলশিক্ষক। পৈতৃক সম্পত্তি তেমন নেই। তবে গত তিন বছরে বিভিন্ন ব্যাংক হিসাবে তার পৌনে সাত কোটি টাকার লেনদেনের তথ্য পাওয়া গেছে। জালিয়াতি করে নিজের ছোট ভাই আবদুর রমজানকেও গত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করিয়েছেন। চক্রের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে তাকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম বলেন, হাফিজুরের প্রায় ১০ কোটি টাকার সম্পদ পাওয়া গেছে, যা তিনি প্রশ্নপত্র ফাঁসের মাধ্যমে অর্জন করেছেন।

ঢাকা, ০৪ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।