Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | সোমবার, ২০শে মে ২০২৪, ৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com
আবরার ফাহাদের স্মরণসভায় হামলার ঘটনায়...

ছাত্র অধিকারের ১৮ জনের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের মামলা

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবার ২০২২, ২২:১৪

রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে হামলা

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে হামলার ঘটনার পর ছাত্র অধিকার পরিষদের ১৮ জনকে দায়ী করে মামলা করেছে ছাত্রলীগ। রাজধানীর শাহবাগ থানায় করা এই মামলার বাদী ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নাজিম উদ্দিন।

শনিবার (৮ অক্টোবর) শাহবাগ থানার পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে শুক্রবার বিকালে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে হামলার ঘটনা ঘটে। বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা ‘আবরার ফাহাদ স্মৃতি সংসদ’-এর ব্যানারে আবরার ফাহাদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই স্মরণসভার আয়োজন করে। একপর্যায়ে ছাত্রলীগ সভায় হামলা করলে ছাত্র অধিকার পরিষদের অন্তত ১০ জন আহত হয়। তারাও ইট পাটকেল ছোড়ে।

পরে আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানেও দ্বিতীয় দফায় হামলা চালায় ছাত্রলীগ। এরপর হাসপাতাল থেকে ২০ জনকে আটক করে পুলিশে দেয় ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগের মামলায় আসামি যারা- ছাত্র অধিকার পরিষদের সহ-সভাপতি মো. তরিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রুবেল হোসেন, সদস্য মো. তসলিম হোসাইন অভি ও মিজান উদ্দিন, ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আকতার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. আকরাম হোসেন, সহ-সভাপতি আসিফ মাহমুদ, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সম্পাদক আব্দুল কাদের, ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা কলেজ শাখার সহ-সভাপতি মো. রাকিব, বংশাল থানা ছাত্র অধিকার পরিষদের সদস্য মো. ওমর ফারুক জিহাদ, ছাত্র অধিকার পরিষদের কর্মী তাওহীদুল ইসলাম তুহিন, মামনুর রশিদ, নাজমুল হাসান, মো. সাদ্দাম হোসেন, ইউসুফ হোসেন, মো. বেলাল হোসেন, মো. আবু কাউছার হাওলাদার ও মাহফুজ। এছাড়া আরও অজ্ঞাত ১৪০/১৫০ জনকে মামলায় আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদী নাজিম উদ্দিন জানান, আমরা টিএসসিতে প্রোগ্রামে যাচ্ছিলাম। তারা (ছাত্র অধিকার পরিষদ) কিছু স্কুলের শিক্ষার্থী, বহিরাগতদের নিয়ে আবরার হত্যার বিচার চেয়ে প্রোগ্রাম করছে। এখানে তারা সরকারকে, ছাত্রলীগকে গালিগালাজ করছে। এ সময় আমরা তাদেরকে বলি আবরার তো আমাদের ছাত্র নয়। এখানে প্রক্টরিয়াল টিম আসে, তারা জানায় এ প্রোগ্রামের অনুমোদন নেই।

তিনি আরও বলেন, এসময় তারা প্রক্টরিয়াল টিম এবং আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার শুরু করে। একপর্যায়ে তাদের লোকজন ইট ছুঁড়লে আমার মাথায় এসে পড়ে। এসময় আমাদের আরও কয়েকজন আহত হয়। পরে আরও কিছু শিক্ষার্থী তাদের ধাওয়া দিয়ে বিতাড়িত করে। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের লক্ষ্যে আমরা শাহবাগ থানায় মামলা করেছি।

ঢাকা, ০৮ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ