Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল ২০২৪, ১১ই বৈশাখ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com

জবিছাত্রী নদীতে লাফ দিয়ে প্রাণে বাঁচলেন যেভাবে...

প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বার ২০২১, ০০:০০

জবি লাইভ: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ফাতেমা আক্তার সাঁতার না জেনেও মায়ের পরামর্শে নদীতে ঝাঁপ দেন। গত বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা দিয়ে গ্রামের বাড়ি বরগুনার উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন ফাতেমা।

মধ্যরাতে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে চলন্ত লঞ্চে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। মায়ের পরামর্শে আগুনে পুড়ে মরার চেয়ে নদীতে ঝাঁপ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সাঁতার না জানা ফাতেমা আক্তার। এতে প্রাণে রক্ষা পান তিনি। কিন্তু, ততক্ষণে অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন।

জবির ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী ফাতেমা বর্তমানে ঝালকাঠির সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করার পরিকল্পনা করছেন ভুক্তভোগীর মা-বাবা। ফাতেমার মা-বাবা দুজনেই জবির কর্মচারী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, লঞ্চে আগুন লাগার পর কী করবেন ভেবে পাচ্ছিলেন না। শেষমেশ মুঠোফোনে মাকে ফোন করে পরামর্শ নেন। সাঁতার না জানলেও মায়ের পরামর্শে ফুফাতো বোনকে নিয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে প্রাণে বেঁচে যান তিনি।

ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান মো. মহিউদ্দিন বলেন, ‘মায়ের পরামর্শ অনুযায়ী ফাতেমা নদীতে ঝাঁপ দেয়। পরে তাঁর ফুফাতো বোনের সহায়তায় কোনোভাবে নদীর তীরে এসে শেষ রক্ষা হয়েছে। দুজনের চেষ্টায় প্রাণে বেঁচে যায় তারা।’

ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘ফাতেমার পরিবারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক আমি যোগাযোগ করে তার বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি। অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার জন্য কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আশা করি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তার পাশে থাকবে।’

ঢাকা, ২৬ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ