বশেমুরবিপ্রবিতে আমরণ অনশনে ৪ শিক্ষার্থী অসুস্থ


Published: 2020-01-20 15:40:24 BdST, Updated: 2020-02-22 03:08:04 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগকে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের সাথে সংযুক্তকরণের দাবিতে অনশনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুজন গুরুতর অসুস্থ হয়ে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন ইটিই বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের আকাশ বিশ্বাস, সাকিবুল হাসান শান্ত ও ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের নাফিসা এবং সিহাব শাহারিয়ার। তাদের মধ্যে আকাশ বিশ্বাস রবিবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুর ২ টায়, নাফিসা গত রাত ১২টা এবং আজ দুপুর ১টার দিকে সাহারিয়ার এবং শান্ত অসুস্থ হয়ে পড়েন। তারা চারজন বর্তমানে গোপালগঞ্জের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অনশনরত শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, শারীরিক দুর্বলতা ও প্রচণ্ড শীতের কারণে এই দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এদিকে, গত রবিবার (২০ জানুয়ারি) রাত ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসি প্রফেসর ড. মো. শাহজাহানসহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙানোর চেষ্টা করলেও শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙতে সম্মত হননি। শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

ইটিই ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী কামরুল হাসান বলেন, উপাচার্যসহ শিক্ষকদের আশ্বাসে আমরা ১৬ জানুয়ারি অনশন কর্মসূচি স্থগিত করে ১৭ জানুয়ারি আলোচনায় বসেছিলাম। আলোচনায় আমরা ২৬ জানুয়ারির মধ্যে আমাদের দাবির যৌক্তিকতা বিচারে একটি তদন্ত কমিটি গঠনসহ তিনটি প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের প্রস্তাবে রাজি হয়নি। এখন আর আলোচনার কোনো সুযোগ নেই এবং দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা অনশন চালিয়ে যাবো।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসি প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান বলেন, আমরা তাদের প্রতি আন্তরিক কিন্তু এটি এমন কোনো বিষয় নয় যেটি স্বল্প সময়ে সমাধান করা সম্ভব।

উল্লেখ্য, ২০১৯ এর ১৭ অক্টোবর থেকে ইটিই বিভাগকে ইইই বিভাগের সাথে একীভূতকরণের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলন করে আসছে ইটিই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা, ২০ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।