মেডিকেল কলেজ ছাত্রকে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ


Published: 2019-11-19 01:22:16 BdST, Updated: 2019-12-11 22:52:01 BdST

ফেনী লাইভ : এবার মেডিকেল কলেজ ছাত্রকে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিখোঁজ ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধারের পর থেকেই এনিয়ে রহস্য দেখা দিয়েছে। তবে পুলিশ বলছে তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা এখও স্পষ্ট নয়। তার ভাগ্যে কি ঘটেছে তা ময়নতদন্ত রিপোর্ট পেলেই নিশ্চিত হওয়া যাবে। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের শেষবর্ষের ছাত্র ছিলেন তিনি। নয়ন চন্দ্র নাথকে শনিবার দাগণভূঞা উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের আজিজ ফাজিলপুর গ্রামে সমাহিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, নয়ন কলেজ ছাত্রাবাসের ৫১০ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে নয়ন সবার ছোট। তার বাবা দিলীপ চন্দ্র নাথ গত প্রায় ৮ মাস আগে মারা যান। বড় ভাই তরুণ চন্দ্র নাথ কুয়েত প্রবাসী। মেঝ ভাই সুজন চন্দ্র নাথ একটি কিন্ডারগার্টেনে শিক্ষকতা করেন। আতাতুর্ক সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ফেনী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন নয়ন।

গত ১৪ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকাল থেকে নয়ন চন্দ্র নাথ নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি করে। নিখোঁজের দু’দিন পর শনিবার ১৬ নভেম্বর সকালে নয়ন চন্দ্র নাথ এর লাশ কলেজ ক্যাম্পাসের বাইরে বাইবাস সড়কের পশড়া গ্রামের একটি কড়াত কলের ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ রাতেই উপজেলার আজিজফাজিলপুর গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

নয়নের চাচা উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিজন বিহারী ভৌমিক জানান, নয়নকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ স’মিলে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। লাশের ধরণ দেখে মনে হয়, এটি হত্যাকাণ্ড।

ঢাকা, ১৯ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।