বাবাকে হত্যার পর নিজেই পুলিশে খবর দিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র!


Published: 2019-10-22 18:00:58 BdST, Updated: 2019-11-15 22:04:11 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ বাবাকে হত্যার পর নিজেই পুলিশকে জানিয়েছেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র। তিনি জরুরি সেবা ৯৯৯ ফোন দিয়ে পুলিশকে ঘটনাটি জানান। পরে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এমন ভয়ংকর ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের শ্রীপুরে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে টাকা চেয়ে না পেয়ে বাবাকে শাবল দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্র ইমরান হাসমিত রাতুল। এঘটনা নিয়ে ওই পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শ্রীপুর থানা ওসি লিয়াকত আলী জানান, ওই স্কুলশিক্ষক বাবুল মাস্টারের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

শ্রীপুর থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, লতিফপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামে নিজ বাড়িতে রাতে বাবুল মাস্টার ও ছেলে রাতুলের মধ্যে টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এর একপর্যায়ে ছেলে রাতুল ঘরে থাকা রড দিয়ে বাবাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

পরে ছেলে নিজেই জরুরি সেবা ৯৯৯ ফোন দিয়ে পুলিশকে ঘটনাটি জানায়। পুলিশ ছেলেকে আটক করে এবং বাবাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টার দিকে মারা যান বাবুল মাস্টার।

তিনি কাপাসিয়া উপজেলার তরগাঁও কোহিনুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের গণিত বিষয়ের শিক্ষক ছিলেন। বাবুল মাস্টার ডান পায়ে কৃত্রিম পা লাগিয়ে চলাচল করতেন। এঘটনায় অভিযুক্ত তার ছেলে ইমরান হাশমি রাতুলকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ। তিনি রাজধানীর ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।

ঢাকা, ২২ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।