ক্লাসে সবসময় ফার্স্টবয় ছিলেন বুয়েট ছাত্র আবরার


Published: 2019-10-08 02:09:29 BdST, Updated: 2019-10-15 03:30:29 BdST
লাইভ প্রতিবেদক : বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবরার ফাহাদ ছোটবেলা থেকেই মেধাবী ছিলেন। ক্লাসে সময় প্রথম সারিতে ছিলেন তিনি। প্রথম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত তিনি সবসময় ক্লাসে ফার্স্ট হতেন। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় লাইফেও তিনি সেরা ছাত্রদের কাতারে ছিলেন।
জানা গেছে, ফাহাদ ২০১৫ সালে কুষ্টিয়া জেলা স্কুল বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। পরে এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হন ঢাকা নটরডেম কলেজে। সেখান থেকে ২০১৭ সালে এইচএসসি পরীক্ষাতেও গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করেন। পরে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ফাহাদ সেখানে শেরে বাংলা হলের ১০১১ নং কক্ষের আবাসিক ছাত্র ছিলেন।
 
অষ্টম শ্রেণি ও ১০ম শ্রেণিতেও বিশেষ বৃত্তি পেয়েছিলেন তিনি। প্রকৌশলী হওয়ার স্বপ্নে ভর্তি হন বুয়েটে। ইতিমধ্যে অনেকটা পথ পাড়িও দিয়েছেন। তবে তীরে তরী ভেড়ানোর আগেই আবরার চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
 
আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ জানান, সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ভাইয়ার এক বন্ধু বুয়েট থেকে প্রথমে ভাইয়ের খবর দিয়ে বলেন ভাইয়া মারাত্বক অসুস্থ। কিছুক্ষণ পর আবার খবর পেলাম ভাইয়া মারা গেছেন। সেমিষ্টার পরীক্ষার কারণে বাসায় ছুটি না কাটিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে চলে যান ভাইয়া। বিকেল ৫টায় পৌছানোর পর সে মোবাইলে জানায়। এর পর থেকে আর কোন যোগাযোগ হয়নি আমার সাথে। সে জানায়-ভাইয়ার মোবাইলে একাধিকবার রিং দিলেও সে ধরেনি। পরে ভাইয়ার মেসেঞ্জার অন থাকলেও সেখানে রিং হলেও ভাইয়া ধরেনি। ফলে আমরা চিন্তিত হয়ে পড়ি। পরে আমরা ভাইয়ার মৃত্যুর সংবাদ পাই। আমার ভাইয়াকে ওরা নির্মমভাবে রাতভর নির্যাতন করেছে।
 
উল্লেখ্য, রোববার রাত তিনটার দিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলের দ্বিতীয়তলা থেকে আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। মৃত্যুর ৮ ঘন্টা আগে তিনি ভারতের সঙ্গে পানি, গ্যাস ও বন্দর নিয়ে চুক্তির বিরোধীতা করে ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন যা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বেশ আলোচিত হয়। এঘটনার পরেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ফাহাদকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে ও নির্যাতনের পর হত্যা করে সিঁড়িতে লাশ ফেলে রাখে। এঘটনায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের ১১ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের ছাত্রলীগ থেকেও স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে।
ঢাকা, ০৮ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।