ভিসির পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল বশেমুরবিপ্রবি


Published: 2019-09-19 17:02:12 BdST, Updated: 2019-11-18 09:11:19 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ভিসির পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে উত্তাল হয়ে উঠেছে ক্যাম্পাস। শত শত শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে দাবি আদায়ে বিক্ষোভ করেছেন।

তারা জানিয়েছেন, ভিসির পদত্যাগের দাবিতে তারা এ আন্দোলন শুরু করেছেন। শিগগিরই দাবিগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা আন্দোলন বন্ধ করবেন না বলে জানিয়েছেন।

এর আগে গত রাতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করলে গভীর রাতে অফিস আদেশ জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার নুরুদ্দীন আহমেদ সাক্ষরিত অফিস আদেশে ১৪টি বিষয়ের নিশ্চয়তা দেয়া হয়।

বিষয়গুলো হলোঃ
১. ৬ মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও শহীদ মিনারের নির্মান কাজ শুরু হবে
২. হল প্রতি সিটের ভাড়া ১৫০ টাকা এবং গণ রুমে ৫০ টাকা করা হবে।
৩. ভর্তি ফি সর্বমোট ১৪,০০০ টাকা এবং সেমিস্টার ফি ২০০০ টাকা করা হবে। বিভাগ উন্নয়ন ফি বাদ যাবে।

৪. সাধারণ শিক্ষার্থীদের বাক স্বাধীনতার নিশ্চয়তা প্রদান করা হবে এবং ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ ছাড়া বহিষ্কার করা হবে না। সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের ডেকে এনে অপমান করা যাবে না।

৫. সকল শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা প্রদানের দায়িত্ব প্রশাসন নিবে।
৬. বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ ১ মাসের মধ্যে নিশ্চিত করা হবে।
৭. শিক্ষার্থীদের প্রতি কোনো ব্যক্তিগত বিষয় একাডেমিক জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে না। ঐ শিক্ষককে আইনের আওতায় আনতে হবে।

৮. বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের নামে যে টাকা নেওয়া হয় তার জবাবদিহিতা দেওয়া হবে এবং উপযুক্ত হিসাব দেয়া হবে।
৯. ভর্তি হওয়ার ১০ বছরের মধ্যে কোনো শিক্ষার্থীকে ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার নোটিশ দেয়া হবেনা।

১০. কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া, অডিটোরিয়াম ও স্টুডেন্ট কমনরুম সর্বোচ্চ ৬ মাসের মধ্যে নির্মাণকাজ শুরু হবে।
১১. বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব চিকিৎসা ভবন করা হবে।
১২.ফেসবুক স্ট্যাটাস ও কমেন্টকে কেন্দ্র করে কোনো শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবেনা

১৩.প্রতি সেমিস্টারে বাস ভাড়া ৩০০ টাকা করা হবে
১৪.সর্বোপরি এই আন্দোলনকে কেন্দ্র করে পরবর্তীতে কোনো শিক্ষার্থীকে কোনো প্রকার ক্ষোভ বা বহিষ্কার করা হবেনা।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়টি কথায় কথায় বহিষ্কার প্রদানসহ বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে বেশ আলোচিত হয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল রাত ৯টায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগ দাবি করেন।

পরবর্তীতে গভীর রাতে এই অফিস আদেশটি প্রকাশিত হয়। এদিকে অফিস আদেশটি প্রকাশের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতা জাহাঙ্গীর আলম বিজয় মিছিলের ঘোষণা দিলেও অধিকাংশ সাধারণ শিক্ষার্থী তা প্রত্যাখ্যান করেছে এবং আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।