অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাবিতে তালা, ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ


Published: 2019-07-21 11:05:40 BdST, Updated: 2019-08-22 22:31:01 BdST

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবনে তালা দিয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। এতে ক্লাস-পরীক্ষা বা অফিসিয়াল সব ধরনের কার্যক্রমই বন্ধ রয়েছে।

আজ রোববার (২১ জুলাই) আজ রবিবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বিল্ডিং, কলাভবন, ব্যবসায় অনুষদ, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের প্রধান প্রধান ফটকে তালা ঝুলছে।অধিকাংশ ভবনের মূল ফটকে তালা লাগিয়ে হাতে ফেস্টুন নিয়ে বসে আছেন শিক্ষার্থীরা। এতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা তাদের কর্মস্থলে যেতে পারছেন না।

অবিলম্বে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের এক দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন তারা। অধিভুক্তি বাতিলের দাবী না মেনে নেয়া পর্যন্ত তালা খুলবেনা বলে জানান আন্দোলন কারী শিক্ষার্থী।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ফলে সকালে ক্লাস করতে এসে ফিরে গিয়েছেন কিছু শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এর আগে ৮টায় কর্মচারীরা তালা খুলতে আসলে তাদেরকে তালা খুলতে বাঁধা দেয় আন্দোলনকারীরা।

সকাল সাতটা থেকে দশটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবনের সমানে অবস্থান করে বিভিন্ন স্লোগান দেন শিক্ষার্থীরা। সকাল পৌনে দশটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো উপাচার্য (প্রশাসন) তার গাড়ি নিয়ে রেজিস্ট্রার ভবনে ঢুকতে চাইলে শিক্ষার্থীরা বাধা দেন। শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করতে ব্যর্থ হয়ে ফিরে যান তিনি। দশটার দিকে রেজিস্ট্রার ভবন থেকে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান করবে তারা।

আন্দোলন কারী শিক্ষার্থীরা বলেন, 'আমরা রোদে পুড়ে শাহবাগে আন্দোলন করি আর প্রশাসন আমাদের সাথে যোগাযোগ না করে এসির বাতাস খায়। ধিক্কার জানাই প্রশাসনকে। তাই আমরা রেজিস্টার বিল্ডিং, কলাভবন, এফবিএস, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদে তালা ঝুলিয়েছি।'

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত কোনো তালা খোলা হবে না বলেও জানান আন্দোলন কারী শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা, ২০ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//আরএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।