জাবি শিক্ষার্থী ফারহানের সেরা বিতার্কিক হয়ে উঠার গল্প


Published: 2019-07-18 18:00:24 BdST, Updated: 2019-08-17 17:49:56 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: নেপালের আন্তর্জাতিক উন্মুক্ত বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সেরা বিতার্কিক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) আইবিএ এর শিক্ষার্থী ফারহান রহমান। প্রবল ইচ্ছাশক্তিকে কাজে লাগিয়ে অজেয়কে জয় করেছেন তিনি।

জাবি শিক্ষার্থী ফারহান এখন বিতর্কের ছোঁয়ায় নতুনদের জন্য আলোর দিশারী। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় বিতর্ক সংগঠন জেইউডিও এর ইংরেজি বিতর্কের যুগ্ম সম্পাদক ফারহান। স্বল্প সময়েই বিতর্ক ভুবনে নিজের জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

নিখাদ পরিশ্রমের মাধ্যমে বাংলা-ইংরেজির সাবলীল বিতার্কিক হয়েছেন তিনি। নিজে যেমন বিতর্ক করতে ভালোবাসেন, তেমনি নতুনদের প্রশিক্ষণ দিয়ে বিতার্কিক হিসেবে গড়ে তোলাতেও তাঁর কোনো ক্লান্তি নেই। বিতর্কের জন্য তাঁর সাধনা প্রশ্নাতীত।

জানা গেছে, নেপালের সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক উম্মুক্ত বিতর্ক প্রতিযোগিতা ‘পঞ্চম মহাসংগ্রাম’ এ সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হয়েছেন ফারহান রহমান। বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শেষে এসে আন্তর্জাতিক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রথমবার অংশ নিয়েই সেরা বিতার্কিক হয়ে গেছেন সে! [সূত্র: প্রথম আলো]

গত ১৪ জুলাই বিকেল কাঠমান্ডুর থামেলে জেভিয়ার্স একাডেমির হলরুম ভর্তি দর্শকের উদ্দেশে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেন তিনি। মুহুর্মুহু করতালি বর্ষণে খুশি, আবেগ ও লজ্জার অদ্ভুত ত্রিমুখী মিশ্রণে হালকা লালচে গাল!

শুরুর গল্পটা বলছিলেন ফারহান, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শুরুতে ব্যক্তিগত জীবনে নানা ঘটনায় হতাশায় মুষড়ে পড়েছিলাম। একদিন এক ছোটভাই এসে বলল বিতর্ক করে দেখেন, ভালো লাগতে পারে। তার কথায় বিতর্ক শুরু করলাম। যোগ দিলাম জেইউডিও-এর নিয়মিত বিতর্ক অধিবেশনে। প্রথম দিকে ভয় লাগত, যা বলতে চাইতাম বলতে পারতাম না। জেদ চাপল মনে। শ্রেণিকক্ষের পড়ালেখার বাইরে বিতর্কই হয়ে উঠল জীবন। নিয়মিত সিটিংয়ে ঝালাই করতে থাকলাম নিজেকে। অবশেষে ধীরে ধীরে সফলতা ধরা দিতে শুরু করল।’

বিতর্ক তাঁর জীবনটাই পাল্টে দিয়েছে জানিয়ে ফারহান জানান, ‘আমাদের সমাজে যে কথাগুলো আমরা বলতে চাই, বলা দরকার, তা বলতে আমরা ভয় পাই। বিতর্ক এমন একটা মাধ্যম, যেখানে না বলতে পারা কথাগুলোই বলা যায় অবলীলায়। সামাজিক সংস্কার আর রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে নিজের মত জানিয়ে দেওয়া যায় যুক্তি-তর্কে। জীবনে যে কিছু জায়গায় রুখে দাঁড়াতে হয়, ঘুরে দাঁড়াতে হয়, এটাই শেখায় বিতর্ক।’

ভবিষ্যতে বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যমে বিতর্ক করে বিশ্ববিদ্যালয় ও দেশের জন্য আরও বড় কিছু অর্জনের স্বপ্ন দেখেন ফারহান। স্বপ্ন দেখেন, একদিন এ দেশের সব তরুণ-যুবক বিতার্কিক হয়ে উঠবেন, যুক্তি দিয়ে কথা বলবেন। সামাজিক সব অসঙ্গতি যুক্তিতে পিষে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ।

১২-১৪ জুলাই ডিবেট নেটওয়ার্ক নেপাল আয়োজিত ৫ম বার্ষিক মহাসংগ্রাম নামে নেপালের সর্ববৃহৎ এই আন্তর্জাতিক উন্মুক্ত প্রতিযোগিতায় ফারহানের সঙ্গী ছিলেন ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের বিতার্কিক আহমেদ ইমতিয়াজ সামাদ। তাঁদের দুজনের দল নেপাল, ভারত, শ্রীলঙ্কাসহ আন্তর্জাতিক ১২০ জন বিতার্কিকের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে গ্রুপ পর্বে সেরা দল হয়ে ফাইনালে উঠে যায়।

ঢাকা, ১৮ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।