একই কলেজের শিক্ষার্থী প্রেমিক-প্রেমিকা...আ'লীগ নেতার মেয়ে নিয়ে লাপাত্তা ছাত্রলীগ নেতা, সন্ধান মিলেনি!


Published: 2021-06-12 21:54:51 BdST, Updated: 2021-08-06 08:26:18 BdST

রাজশাহী লাইভ: লাপাত্তা ছাত্রলীগ নেতা। এলাকায় তার কোন সন্ধান এখনও মিলছে না। ওই নেতার সন্ধ্যানে নেমেছেন অনেকেই। স্বজনরাও তালাশ করছেন। কোথায় গেল, কিভাবে গেল লাপাত্তাই কেন হলো। অবশেষে জানা গেলো নানান তথ্য। ওই ছাত্রলীগ নেতা লাপাত্তা হননি। তিনি প্রেমের টানে বাড়ি ছেড়েছেন। তবে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে নিয়েই তিনি অজানার পথে পা রাখলেন। বন্ধ করে দিয়েছেন তার সেল ফোন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সকল আইডির নেটওয়ার্ক। ওই কলেজ ছাত্রীর মা খানা দানা ছেড়ে দিয়েছেন।

তবে এলাকার অনেকেই বলেছেন ইজ্জত বেঁচে গেছে ঘরের ছেলে ঘরের মেয়েকে নিয়েই পালিয়েছেন। তাদের সম্পর্কটা ছিলো বেশ মজবুত। পড়াশুনা একই কলেজে। তারা মাঝে মধ্যেই বিভিন্ন এলাকায় ঘুরতে যেতেন। এলাকার অনেকেই জানতেন তাদের প্রেমের সম্পর্ক। কিন্তু মুখ খুলেনি কেউ। রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতির মেয়েকে নিয়ে পালিয়েছে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি। এই ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় নানান আলোচনা ও সমালোচনা চলছে।

এদিকে মেয়ের সন্ধান চেয়ে ভুক্তভোগী বাবা আওয়ামী লীগ নেতা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তারা পালিয়ে যান। গতকাল ভুক্তভোগী বাবা মেয়ের সন্ধান চেয়ে বেলপুকুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। ঘটনাটি যাকে জানাজানি না হয় সেজন্যে প্রথম দিকে খুবই গোপনীয়তা রক্ষা করা হয়। কিন্তু এসব বিষয় তো আর গোপন থাকে না। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তবে আবার অনেকেই বলেছেন নিজেদেরই ছেলে সমস্যা কি। মেনে নিলেই হলো।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নাম দেলোয়ার হোসেন। তিনি বানেশ্বর ইউনিয়নের আব্দুুস সোবহানের ছেলে। বানেশ্বর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি। তার সঙ্গে পালিয়ে যাওয়া তরুণী বেলপুকুর ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতির মেয়ে ও একই কলেজের শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

এ ব্যাপারে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বেলপুকুর থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, পুলিশ কলেজছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

এদিকে বিষয়টি এখন কেবল এলাকায় নয় জেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা জেনে গেছেন। সকলের একটাই বক্তব্য আগে জেনে শুনেও কেন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। আগে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করলে আজকের এই সমস্যা হতো না। জানা গেছে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিষয়টি মিটমাটের চেষ্ঠা চলছে।

ঢাকা, ১২ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।