সিসিটিভিতে ধরা ওয়ার্ড বয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ল রোগী...তারপর...


Published: 2021-05-11 04:24:00 BdST, Updated: 2021-06-19 18:34:28 BdST

নেত্রকোনা লাইভ: শেষ রক্ষা হয়নি। অবশেষ ধরা পড়লো হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়। সে নিজেও ফেঁসে যাচ্ছে সঙ্গে হাসপাতালের রোগী। যিনি তরুণী বটে। ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। ওই হাসপাতালে ভর্তি হওয়া এক তরুণীর (২০) সঙ্গে ওই হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় অনৈতিক শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে এলাকায় শুরু হয় তোলপাড়। প্রথমে কানাঘোষা। পরে চাউর হয়ে যায় গোটা উপজেলায়। অবশেষে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

তারপর ওই তরুণীর সাথে ওয়ার্ডবয়ের অনৈতিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার সত্যতা মিলেছে রোববার (৯ মে)। তাও হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজে। বিষয়টি উল্লেখ করে তদন্ত কমিটি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। জানা গেছে, পাশের উপজেলা আটপাড়ার বাউশা খলাপাড়া গ্রামের এক তরুণী পেট ব্যথা নিয়ে ২৮ এপ্রিল বিকালে মদন হাসপাতালে ভর্তি হয়।

মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আউটসোর্সিং এ নিয়োগ প্রাপ্ত ওয়ার্ড বয় মোরাদ (২৫) ওই তরুণীর সাথে হাসপাতাল বেডে অনৈতিক শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছে এমন অভিযোগ উঠে। পরে এ ঘটনায় আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাক্তার সৈয়দ সাঈম হাসান রিয়াদকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ওই তরুণীর সাথে ওয়ার্ড বয় মোরাদ অনৈতিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার সত্যতা মিলেছে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজে। বিষয়টি উল্লেখ করে তদন্ত কমিটি রোববার (৯ মে) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

ডাক্তার সৈয়দ সাঈম হাসান রিয়াদ ওয়ার্ডের সিসিটিভির ফুটেজের বরাত দিয়ে জানান, ওয়ার্ড বয় মেরাদের সাথে ভর্তি হওয়া তরুণীর অনৈতিক কাজের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট দাখিল করা হয়েছে। তিনি বলেন ওই ওয়ার্ডবয় একটু দুষ্টু প্রকৃতির ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ আসছে এখন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হাসানূল হক জানান, আউটসোর্সিং এ নিয়োগপ্রাপ্ত ওয়ার্ড বয়ের সাথে ভর্তি হওয়া রোগীর অনৈতিক কাজের সত্যতা পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তদন্ত প্রতিবেদনটি নেত্রকোনা সিভিল সার্জন বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা ন্যায়ের পক্ষে আছি। অন্যায় মেনে নেয়া হবে না। ওই মোরাদ এখন পলাতক রয়েছে।

ঢাকা, ১০ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।