''গ্রেফতারকৃত রনি ও ফিরোজ হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে''ববির আন্দোলন স্থগিত, ১৭টি রু‌টে বাস চলাচল বন্ধ, ফের চালু


Published: 2021-02-20 21:10:17 BdST, Updated: 2021-03-03 23:18:16 BdST

ববি লাইভ: আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। তাদেরকে নানান আশ্বাসের পর শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন রোববার পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে দিনভর বিক্ষোভে উত্তাল ছিল বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি)।শনিবার সন্ধ্যায় বৈঠক শেষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রোববার পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেন তারা। এদিকে, শ্রমিক গ্রেফতারের প্রতিবাদে ৭ জেলার ১৭টি রু‌টে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন প‌রিবহন মা‌লিক-শ্রমিকরা

সহপাঠীদের ওপর পরিবহন শ্রমিকদের হামলার প্রতিবাদে দিনভর উত্তাল ছিল বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়। অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা বরিশাল-কুয়াকাটা সড়ক অবরোধ করে চলে বিক্ষোভ। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ও প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক শেষে আান্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উদযাপন নির্বিঘ্ন করতে একদিনের জন্য আন্দোলন স্থগিত করেছেন তারা।

তাছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশ বলছে, হামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে আইনি ব্যবস্থা। জনদুর্ভোগ বিবেচনায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান জানান তারা। তবে শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন আন্দোলনের ফসল না নিয়ে তারা ঘরে ফেরবেন না।

গ্রেফতারকৃত দুই শ্রমিক

 

প্রসঙ্গত, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুই পরিবহন শ্রমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নগরীর রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- এমকে পরিবহনের সুপারভাইজার আবুল বাশার রনি (২৫) ও সাউথ বেঙ্গল পরিবহনের হেলপার মো. ফিরোজ (২৪)। তারা দু’জনই নগরীর রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন হাউজিং এলাকার বাসিন্দা। গ্রেফতার অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া কোতয়ালি থানার ওসি নুরুল ইসলাম বলেন, ‘মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে রূপাতলী হাউজিং এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কয়েকটি মেসে হামলা চালানো হয়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. মুহসিন উদ্দিন বাদী হয়ে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন। মামলা দায়েরের পর আসামিদের শনাক্ত ও গ্রেফতারে পুলিশের একাধিক দল কাজ শুরু করে। তবে গ্রেফতারের হাত থেকে রক্ষা পেতে আত্মগোপন করেন হামলাকারীরা। এ কারণে তাদের গ্রেফতারে সক্ষম হচ্ছিল না পুলিশ।’

তিনি বলেন, ‘শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে আবুল বাশার রনি ও মো. ফিরোজ রূপাতলী বাসস্ট্যান্ডে আত্মগোপন করেছেন। এরপর সেখানে অভিযান চালানো হয় রূপাতলী বাসস্ট্যান্ডে। সেখানে পার্কিং করে রাখা প্রায় অর্ধ শতাধিক বাসে তল্লাশি চালানো হয়। রাত দেড়টার দিকে তাদের দুইজনকে একটি বাসের ভেতর থেকে গ্রেফতার করা হয়।’

ওসি নুরুল ইসলাম আরও বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আবুল বাশার রনি ও মো. ফিরোজ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তারা ছাড়াও হামলার ঘটনায় আরও বেশ কয়েকজন পরিবহন শ্রমিক জড়িত রয়েছেন। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

আবার বাস চলাচল শুরু:

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাস ধর্মঘট স্থগিত করেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। ফলে বরিশাল থেকে দক্ষিণের ১৭ রুটে বাস চলাচল শুরু হয়েছে। তবে গ্রেফতার দুই শ্রমিককে মুক্তি না দিলে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৬টা থেকে ফের ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছেন তারা। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ধর্মঘট কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও মহানগর আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন।

শ্রমিকদের আন্দালন

 

তিনি জানান, শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা মামলায় এমকে পরিবহনের সুপারভাইজার আবুল বাশার রনি (২৫) ও সাউথ বেঙ্গল পরিবহনের হেলপার মো. ফিরোজকে (২৪) গ্রেফতার করা হয়েছে। ফলে বরিশাল থেকে দক্ষিণের ১৭ রুটে বাস চলাচল বন্ধ ছিল। সন্ধ্যার পর শ্রমিকদের সঙ্গে বাস মালিক সমিতির নেতাদের বৈঠক হয়। বৈঠকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ধর্মঘট প্রত্যাহারে অনুরোধ জানানো হয়। বৈঠক শেষে সন্ধ্য সাড়ে ৭টার দিকে ধর্মঘট স্থগিতের ঘোষণা দেয়া হয়। তিনি আরও বলেন, দুই শ্রমিককে মুক্তি দেয়া না হলে সোমবার থেকে ফের কর্মসূচি পালন করবে শ্রমিকরা।

এর আগে গ্রেফতার দুই শ্রমিকের মুক্তির দাবিতে শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘট শুরু করেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১০ ঘণ্টা বাস চলাচল বন্ধ থাকায় সীমাহীন ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ।

ঢাকা, ২০ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।