রায়হানের মৃত্যু: ৩ পুলিশ সদস্যের জবানবন্দি


Published: 2020-10-19 20:08:32 BdST, Updated: 2020-12-03 19:15:09 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) বন্দরবাজার ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনের ফলে রায়হান আহমদ নিহতের ঘটনায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ৩ পুলিশ সদস্য। এই তিন কনস্টেবল ১০ অক্টোবর রাতে বন্দরবাজার ফাঁড়ির নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) বিকেল সিলেটের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াদুর রহমানের আদালতে ওই রাতের প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তারা। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) বি এম আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিন পুলিশ সদস্য হলেন- শামীম, সাইদুর ও দেলোয়ার। তারা ওই ফাঁড়ির কনস্টেবল।

মামলার বর্তমান তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইর পরিদর্শক মাহিদুল ইসলাম ওই রাতের ঘটনার সাক্ষী হিসেবে তাদের বক্তব্য রেকর্ড করতেই আদালতে তোলা হয়। রায়হানের মৃত্যুর ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত বা প্রত্যাহার হওয়া সাত জনের মধ্যে কেউ নন এই তিন জন।

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া চারজন হলেন, ফাঁড়ি ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) তৌহিদ মিয়া, কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাশ ও হারুনুর রশীদ।

অন্যদিকে প্রত্যাহার হওয়া তিনজন হলেন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আশীক এলাহী, এএসআই কুতুব আলী ও কনস্টেবল সজীব হোসেন। তাদের মধ্যে এসআই আকবর পলাতক রয়েছেন। বাকিরা পুলিশের হেফাজতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইনে আছেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এর আগে গত ১১ অক্টোবর ভোরে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হানের মৃত্যু হয়। ওই দিন রাতে কোতোয়ালি মডেল থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন নিহতের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার। পরে দেশব্যাপী সমলোচনার মধ্যে ওই ফাঁড়ির ইনচার্জসহ চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত এবং তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। মামলাটি এখন তদন্ত করছে পিবিআই।

ঢাকা, ১৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।