বুয়েট: ''কেন হত্যা করলো আমার আবরারকে''...


Published: 2019-10-07 21:06:54 BdST, Updated: 2019-10-23 17:15:01 BdST

বুয়েট লাইভঃ নিজের সন্তানের অসুখের খবর শুনে লাশ দেখে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ক্যাম্পাসে ছুটে এসেছেন নিহত আবরার ফাহাদের বাবা। ক্যাম্পাসে এসেই ছেলের শোকে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি। তার একটাই জিজ্ঞাসা কেন হত্যা করা হলো আবরারকে। কি অপরাধ ছিলো তার। আমার ছেলে কি চোর, ডাকাত, সন্ত্রাসী না মাদকসেবী? ওর তো কোন দোষ ছিল না। তবে কেন ওরে হত্যা করা হলো।

আবরারের পিতা কুষ্টিয়া থেকে রওনা দিয়ে সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকাল ৪টা ৩৫ মিনিটে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে এসে পৌঁছেছেন। বাবা বরকতুল্লাহ ও তার চাচা জহুরুল ইসলাম। এ সময় আবরারের মা সঙ্গে এলেও তাকে দেখা যায়নি।

বুয়েট ক্যাম্পাসে প্রবেশের সময় নিহত আবরারের বাবাকে মনমরা দেখা গেলেও হলের ক্যান্টিনের কাছাকাছি এসে ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদতে থাকেন তিনি। এ সময় তার চাচা জহুরুল ইসলাম চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে সরকারের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

এসময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে আবরারের চাচা বলেন, ‘আপনারা সত্য কথা লিখলে এবং বললে আবরার সঠিক বিচার পাবে।’

উল্লেখ্য, সোমবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র আবরার ফাহাদ মুজাহিদের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। তিনি ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আবরারকে হলের সিঁড়িতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সকালে কয়েকজন সহপাঠী অচেতন অবস্থায় আবরারকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া আবরার হত্যার ঘটনায় দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা, ০৭ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিজন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।