যৌতুক আর অনৈতিক সম্পর্কের কারণে চাকরি হারালেন পুলিশ কর্মকর্তা


Published: 2021-09-10 20:41:36 BdST, Updated: 2021-10-28 11:02:59 BdST

পাবনা লাইভ: বেশ কিছু দিন ধরেই নির্যাতন করে আসছিলো সেই পুলিশ কর্মকর্তা। কিন্তু সংসারের মায়াজালে বন্দি হয়েছিলেন তার স্ত্রী। তিনি স্বপ্ন দেখছিলেন ভাল হয়ে যাবে তার স্বামী। আবারো সংসারে আসবে শান্তি। দুর হবে সব দু:খ কষ্ট। একদিকে যৌতুক অন্যদিকে স্বামীর অনৈতিক সম্পর্ক স্ত্রীর জীবন বিষিয়ে তুলেছেন সেই এসআই। কোন উপায় না দেখে ওই স্ত্রী আইন ও প্রতিকারের পথে হাটতে গেলেই ওই এসআইয়ের চাকরী চলে গেছে। যৌতুকের কারণে স্ত্রী নির্যাতন এবং অন্য এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়ানোর অভিযোগে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) এসআই নাছির আহম্মেদকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার ডিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার ফরিদা ইয়াসমিন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ আদেশ দেওয়া হয়েছে।

সংশ্নিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পাবনা সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে রুবিনা আক্তার রুনার সঙ্গে পাবনা শহরের কাচারীপাড়ার মোস্তাক আহম্মেদের ছেলে নাছির আহম্মেদের বিয়ে হয় ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর। বিয়ের পর থেকেই নাছির পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিলেন। টাকা না দেওয়ায় নাছির প্রায়ই রুবিনা খাতুনের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতেন।

বিয়ের প্রায় দুই বছর পর ২০১৪ সালের ১১ নভেম্বর নাছির এসআই পদে পুলিশে যোগ দেন। যৌতুক দাবি ও স্ত্রীকে মারধরের ঘটনায় রুবিনার বাবা ২০১৯ সালে পাবনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে নাছিরসহ তার বাবা-মা ও বোনকে আসামি করে মামলা করেন। ওই মামলায় নাছির আদালতে জামিনের জন্য হাজির হলে তার জামিন নামঞ্জুর হয়।

এলাকাবাসী জানায়, এ ছাড়া নাছির আহম্মেদ অন্য এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এসব ঘটনায় পুলিশ সদর দপ্তর নাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত ও বিভাগীয় মামলা করে। পরে বিভিন্ন তদন্তে নাছিরের বিরুদ্ধে অপরাধের প্রমাণ পাওয়া যায়। এ কারণে তাকে চাকরি থেকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়। এনিয়ে এলাকায় চলছে নানান সমালোচনা।

ঢাকা, ১০ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।