Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল ২০২৪, ৯ই বৈশাখ ১৪৩১
teletalk.com.bd
thecitybank.com
প্রথমবারেই চমক

২০ দিনের প্রস্তুতিতে জজ হলেন ববির রকিবুল

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ২২:৪১

বরিশাল বিশ্বদ্যিালয়ের শিক্ষার্থী রকিবুল হাসান
ববি লাইভ: বরিশাল বিশ্বদ্যিালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী মো. রকিবুল হাসান ৷ যিনি বিসিএসের প্রস্তুতি নিয়ে টানা চারবার লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন , হয়েছেন ৪০ তম বিসেএসের নন ক্যাডারও তবুও হাল ছাড়েন নি,এগিয়ে গেছেন,দৃঢ় আত্মবিশ্বাসের সাথে৷ মাত্র ২০ দিনের প্রস্তুতি নিয়ে ১৫ তম বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের (বিজেএস) সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় প্রথমবার অংশগ্রহণ করে মেধাতালিকায় ৭৫তম স্থান অর্জন করে চমক লাগিয়েছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রথম ব্যাচের ও বিশ্ববিদ্যালয়ের (২০১৩-১৪) সেশনের এই শিক্ষার্থী ৷ এখন অনেকের কাছে অনুপ্রেরণার নাম এই শিক্ষার্থী। তার এই সাফল্যের গল্প তুলে ধরেছেন ক্যাম্পাসলাইভের বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক মো. জাকির হোসেন ।
 

ক্যাম্পাসলাইভ : ক্যাম্পাসলাইভের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। কেমন আছেন?

মো. রকিবুল হাসান :  ক্যাম্পাসলাইভকে ধন্যবাদ, আমি ভালো আছি।

ক্যাম্পাসলাইভ : প্রথমে আপনার জন্মস্থান ও শৈশবকাল সম্পর্কে বলুন?

মো. রকিবুল হাসান : আমার জন্ম ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলায় নিজ গ্রামে , সেখানেই প্রাথমিকের পড়াশোনা এবং শৈশবকাল কাটে, স্কুল ফাঁকি দিয়ে সিনেমা দেখা, ক্রিকেট খেলা এগুলো পছন্দের কাজ ছিল।

ক্যাম্পাসলাইভ : বিচারক হওয়ার পেছনে কোন বিষয়টি আপনাকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে?

মো. রকিবুল হাসান : বিচারক হবার পিছনে সবচেয়ে বেশি যে অনুপ্রেরণা সেটা হলো সাধারণ  মানুষের কাছে একজন বিচারক অনেক সম্মানীয় মানুষ এবং এই পেশাতে ন্যায় বিচারের সুযোগ রয়েছে যার মাধ্যমে মানবসেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখা যায়।

ক্যাম্পাসলাইভ : ছোট থেকেই বিচারক হওয়ার স্বপ্ন ছিল?

মো. রকিবুল হাসান: না, ছোট থেকেই বিচারক হবার স্বপ্ন ছিলনা। তখন জানতাম না কীভাবে বিচারক হয়। মূলত ভার্সিটিতে ভর্তি পরীক্ষার সময় বিজ্ঞান  বিভাগ পরিবর্তন করে আইনে ভর্তি হবার পর থেকেই বিচারক হবার স্বপ্ন।

ক্যাম্পাসলাইভ : বিচারক হিসেবে সুপারিশপ্রাপ্ত হওয়ার পর অনুভূতি কেমন ছিল?

মো. রকিবুল হাসান : সহকারী জজ পদের নিয়োগের ফাইনাল রেজাল্ট শিট দেখার সময় আমি কৃষি ব্যাংকের ভল্টে টাকা মিলাচ্ছিলাম। উল্টো দিক থেকে নিজের রোলটা খুঁজতেছিলাম। রোলটা দেখার পর নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। ম্যানেজার স্যারকে এডমিট কার্ড  দেখালাম ফোন থেকে। উনি বললেন ১০০% শিউর ঠিকাছে,তুমি টিকে গেছ। এরপরের অনূভুতি ভাষায় বোঝাতে পারবনা।

ক্যাম্পাসলাইভ : প্রস্তুতি কেমন ছিল?

মো. রকিবুল হাসান : বিসিএস পরীক্ষা দেওয়া কারণে বিজেএস ৪০০ নম্বরের প্রস্তুতি ছিল আগে থেকেই । বাকি আইনের  ৬০০ নম্বরের জন্য ২০ দিনের মত পড়েছি।

ক্যাম্পাসলাইভ : এই অবস্থানে আসতে কী কী বাধা অতিক্রম করেছেন?

মো. রকিবুল হাসান : মানুষের জীবনে অনেক বাধাবিপত্তি থাকে। আমারো ছিলো। তবে পড়ালেখার জায়গাটাকে আমি সবসময়ই এক পাশে রেখেছি। সেখানে কোনো বিপত্তি হয়নি আল্লাহর রহমতে।

ক্যাম্পাসলাইভ : যারা জজ হতে আগ্রহী তাদের জন্য আপনার পরামর্শ থাকবে?

মো. রকিবুল হাসান: যারা সহকারী জজ পরীক্ষা দিবেন তাদের প্রতি আমার পরামর্শ হলো আইনের বাইরের যে ৪০০ নম্বর থাকে সেখানে নম্বরগুলো উঠানো সহজ এবং না পারলে খুব দ্রুত নম্বর কমে যাবে। বিশেষকরে গণিত ও বিজ্ঞান, এখানে ১০০ তে ৯০ এর আশপাশে পেলে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকাটা সহজ। পাশাপাশি জুডিশিয়ারির বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীর প্রশ্নগুলো দারুণ স্মার্ট এবং প্রাসঙ্গিক থাকে। সেখানে সবাই লিখবে। তবে একটু ভালো জানাশোনা থাকলে লেখাটা যৌক্তিক এবং প্রিসাইজ করে লিখতে পারলে ভালো করা সম্ভব।

ক্যাম্পাসলাইভ: আমাদেরকে সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ ৷

মো. রকিবুল হাসান: ক্যাম্পাসলাইভকে ধন্যবাদ।

 

ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম //জেএইচ//এমএফ


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ