teletalk.com.bd
thecitybank.com
[email protected] ঢাকা | বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯
teletalk.com.bd
thecitybank.com

পবিপ্রবিতে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ নীতিমালা প্রণয়নে সেমিনার

Md Akramuzzaman | প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২ ১৭:২০

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২ ১৭:২০

যৌন হয়রানি প্রতিরোধ নীতিমালা প্রণয়নে সেমিনার

পবিপ্রবি লাইভ: পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) Launching Ceremony of The 'zero tolerance to sexual harassment' policy of Patuakhali Science And Technology University শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২২ জুন) বেলা ১১ টায় এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সেমিনারের শুভ উদ্বোধন করেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত। এ সময় তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে না এমন নয় কিন্তু কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এর সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকার জন্য তেমন কোনো শাস্তির আওতায় আনা হয় না। শুধুমাত্র ক্লাস কিংবা পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। আবার অনেক সময় যৌন হয়রানির জন্য কেউ অভিযোগই করতে চাই না।

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে নীতিমালা প্রণয়ণের সেমিনারে সহায়তা করে গ্লোবাল এ্যাফেয়ার্স কানাডা, ইউএন ওমেন বাংলাদেশ, শুভ, আমরাই পারি।

সহযোগী অধ্যাপক সুজন কান্তি মালির সঞ্চালনায় উক্ত সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন মৌলি আজাদ, ডেপুটি ডিরেক্টর, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট ডিভিশন, ইউজিসি; জিনাত আরা হক, চিফ এক্সিকিউটিভ, আমরাই পারি; ফারজানা সুলতানা, ডেভেলপমেন্ট এডভাইজার, গ্লোবাল এ্যাফেয়ার্স কানাডা; শ্রাবনা দত্ত, নলেজ ম্যানেজমেন্ট এ্যান্ড মনিটরিং এ্যানালিস্ট, ইউএন ওমেন বাংলাদেশ; হাসিনা বেগম নীলা, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, শুভ, পটুয়াখালী। আরো বক্তা হিসেবে ছিলেন প্রক্টর প্রফেসর সন্তোষ কুমার বসু, ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর এবিএম মাহবুব মোর্শেদ খান, সহযোগী অধ্যাপক পাপড়ি হাজরা,সহযোগী অধ্যাপক সৌরভ দেবনাথ।

মৌলি আজাদ বলেন, প্রত্যেকটা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন সুনির্দিষ্ট নীতিমালা থাকা জরুরি। কেননা যৌন হয়রানির নীতিমালা এবং প্রয়োগ না থাকলে নির্যাতক কখনোই প্রকৃত শাস্তির আওতায় আসবে না।

জিনাত আরা হক বলেন, প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয়ে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা থাকা জরুরি এবং পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি থাকতে হবে যেখানে নারী সদস্যের প্রাধান্য থাকতে হবে।

এছাড়াও বক্তারা বলেন, যৌন হয়রানি শিক্ষার বিকাশে অন্তরায় সৃষ্টি করে। শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ রক্ষা করতে এই নীতিমালা প্রণয়ন এবং প্রয়োগের বিকল্প নেই।

উক্ত সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা, ২২ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন//এমজেড




আপনার মূল্যবান মতামত দিন: