সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় ববি শিক্ষক সমিতির নিন্দা


Published: 2021-10-19 12:01:32 BdST, Updated: 2021-11-28 06:27:54 BdST

ববি লাইভ: কুমিল্লার ঘটনা এবং তৎপরবর্তী দেশের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) শিক্ষক সমিতি।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. খোরশেদ আলম ও সাধারণ সম্পাদক জ্যোতির্ময় বিশ্বাস স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, সম্প্রতি কুমিল্লার এক পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন অবমাননার সংবাদ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কুমিল্লা, নোয়াখালী, চাঁদপুর, রংপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপে হামলা, প্রতিমা ভাংচুর এবং পুরোহিতদের উপর আক্রমণসহ নানাবিধ নৃশংসতার ঘটনা ঘটে যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আবহমানকাল থেকে বাংলা ভূখণ্ডে নানা জাতি-গোষ্ঠী ও ধর্মমতের অনুসারীরা পারস্পরিক সুসম্পর্ক বজায় রেখে মিলেমিশে একত্রে বসবাসের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক বা আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির ঐতিহ্য সংহত রেখে চলেছে। বঙ্গবন্ধু ও মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল লক্ষ্য ছিল সব ধর্মের মানুষের মানবিক অধিকার নিশ্চিত করা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, এদেশে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বসবাস করে আসছে। বাঙালি জাতি অসাম্প্রদায়িক চিন্তা-চেতনা ধারণ করেই ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে একসাথে মিলে স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক অধিকারসমূহ আদায়ে সফল হয়েছে। এ ধরণের শান্তিপূর্ণ অবস্থানকে কুচক্রী মহল তাদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য পরিকল্পিতভাবে বিভেদ তৈরির অপচেষ্টা করছে। এ বিষয়ে আমাদের সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে একে অপরের প্রতি সহমর্মিতা ও সহযোগিতার মনোভাব পোষণ করাই একান্ত কাম্য। সকল ধরণের মনুষ্যত্বকে বিসর্জন দিয়ে এরূপ নৃশংসতা পুরোপুরিভাবে অগ্রহণযোগ্য। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি এধরণের হামলা ও সহিংসতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে এবং এই ঘটনাসমূহের সাথে সংশ্লিষ্ট সকল ষড়যন্ত্রকারী ও দুষ্কৃতিকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছে।

ঢাকা, ১৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজে//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।