ইফতারে কেমন হবে খেজুরের ক্ষির!


Published: 2019-05-27 21:24:37 BdST, Updated: 2019-06-24 15:41:24 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ইফতারের সময় তৈলে ভাজা খাবারে মজা বাড়লেও স্বাস্থ্য সম্মত নয়। তবে ইফতারে সাধারনত কমবেশি ভাজাপোড়া খাওয়া হয়েই থাকে। অন্যান্য ইফতারির সঙ্গে যদি একটু মিষ্টিমুখ হয় তবে তা হবে আরো মজাদার। ইফতারে বিভিন্ন খাবারের আয়োজনের সঙ্গে রাখতে পারেন খেজুরের ক্ষির।

যে কারণে খাবেন খেজুরের ক্ষির:
খেজুর সুস্বাদু বাড়িয়ে দিয়েছে এর পরিচিত। খেজুরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফ্রুকটোজ এবং গ্লাইসেমিক। এটা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়ায়। খেজুর ফলকে চিনির বিকল্প হিসেবে ধরা হয়ে থাকে। খেজুরের পুষ্টি উপাদান সম্পর্কে বলা হয় চারটি বা ৩০ গ্রাম পরিমাণ খেজুরে আছে ৯০ ক্যালোরি, এক গ্রাম প্রোটিন, ১৩ মি.লি. গ্রাম ক্যালসিয়াম, ২.৮ গ্রাম ফাইবার এবং আরও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান।খেজুর শক্তির একটি ভালো উৎস। তাই খেজুর খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীরের ক্লান্তিভাব দূর হয়। আছে প্রচুর ভিটামিন বি। যা ভিটামিন বিসিক্স মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক।

উপাদান:
১৫টি বিচি ছাড়া খেজুর, এক/ চার কাপ নারকেল দুধ, এক টেবিল চামচ কাঠবাদাম, একটি গুঁড়ো করা সবুজ এলাচি, দুই কাপ দুধ, এক টেবিল চামচ ক্যাশোনাট, এক টেবিল চামচ ঘি

প্রণালী:
এক থেকে দুই কাপ খেজুর ২০ থেকে ৩০ মিনিটের জন্য গরম দুধে ভেজান। একে ব্ল্যান্ড করে নিন। ব্ল্যান্ড করার সময় সামান্য দুধ মেশান। এবার দুধ জ্বাল দিন। যখন এটি সিদ্ধ হতে শুরু করবে, চুলার আঁচ কমিয়ে এর মধ্যে খেজুরের মিশ্রণ দিন। সাত থেকে আট মিনিট রান্না করুন।

এবার কাটা কাঠবাদাম, কাটা ক্যাশোনাট, এলাচি গুঁড়া ও নারকেল দুধ মেশান। আবার দুই মিনিট রান্না করুন। চুলা থেকে নামিয়ে পরিবেশন করুন খেজুরের ক্ষির।


ঢাকা, ২৭ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।