ক্যাম্পাসে ব্রেকআপ : আমাদের গল্পটা নিজের হাতেই লিখবো


Published: 2018-06-11 01:00:23 BdST, Updated: 2018-10-23 05:37:50 BdST

আরাফাত আবদুল্লাহ : রিলেশন কিংবা ভালোবাসার গল্পগুলো জোর করে দাঁড় করানো যায় না। সাত বছর রিলেশন করে কেন সে বিয়ের সময় পল্টি নিলো এর কোন সঠিক ব্যাখ্যা বের করা যায় না। হয়তো সাত বছরের সম্পর্কটা শুধু টাইম পাসিংই ছিল। একজন সেটাকে সিরিয়াসলি নিয়েছে। অন্যজন সেটাকে মজা হিসেবেই নিয়েছে। কিছু বলার নেই।

বিচ্ছেদের পর একজনের রাত কেটেছে গভীর বেদনার ঘোরে। অন্যজন মহাআনন্দে দিন কাটিয়েছে। আমাদের ক্যাম্পাসেইতো এমন গল্প আছে যেখানে চার বছরের সম্পর্কের পর একজন আরেকজনকে বলে বসে, তোমাকে আমার দরকার নেই। তোমার সাথে আমার ম্যাচ করে না। তোমার পরিবারের সাথে আমার যায় না। বহু ছেলে-মেয়ে আছে যারা এই একটা সুতো ধরে নিজেদের ক্যারিয়ার বরবাদ করে দিয়েছে।

লাইফ বরবাদ
সময় বরবাদ
ক্যারিয়ার বরবাদ

খুব কমই ফিরে আসতে পেরেছে। যারা ফিরে আসতে পারেনি তারা ছন্দ হারিয়ে দিনের পর দিন কেঁদেছে। লাভ হয় নি। তারপর একদিন সেই ছন্দ হারা মানুষটার গল্পটাও হয়তো বদলে যায়। সেও এখন সুন্দরভাবে বাঁচে। সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যায়।

এক্স গার্ল/বয়ফ্রেন্ডের জন্য তাই জীবন নষ্ট করাটা অনুচিত। যা হয়েছে হয়েছেই। its over... এখন নতুন গল্পের শুরু। তুমি নেই। তোমার সাথে টিএসসিতে ঘোরার গল্পটাও নেই।

প্রতিটা ছেলের জন্য এটা একটা বড় চ্যালেঞ্জ। ধাক্কা সামলে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া। যেন ৫ বছর পর সেই মানুষটা বুঝতে পারে ধাক্কা দিয়েও ছেলেটাকে টলানো যায়নি।

কনফেশন পেইজে আমরা যে একপাক্ষিক ভালোবাসার গল্পগুলো দেখি সেখানকার সবগুলা ভিক্টিম হচ্ছে একেকটা ছেলে। প্রায় সবাই ছিল টাইম পাসের সঙ্গী। টাইম পাস শেষ। ছুড়ে ফেলে দেয়া হয়েছে। কিন্তু এই ছুড়ে ফেলে দেয়াটাই শেষ কথা নয়। নিজের মতো করে সামনে এগিয়ে যাওয়াটাই আসল কথা।

দিন শেষে যেন বলতে পারি ...
আমরা ছিলাম
আমরা আছি
আমরা থাকবো

আমাদের গল্পটা অন্যের হাতে নয় বরং নিজের হাতেই লিখবো।

Arafat Abdullah (মধ্যরাতের অশ্বারোহী)
University Of Chittagong

ঢাকা, ১১ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।