যে ভাবে রমজানে সতেজ থাকবেন


Published: 2018-05-21 17:08:49 BdST, Updated: 2018-12-11 13:22:45 BdST

অভিনেত্রী মৌসুমী: আপনি কি সতেজ থাকতে চান? প্রাণবন্ত থাকতে চান? তাও আবার মাহে রমজানে। পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে।

রোজায় দিনে দীর্ঘ সময় না খেয়ে থাকা হয়। এতে আমাদের শরীর ও ত্বক পানিশূন্য হতে পারে। এসময় সঠিক যত্ন ও পর্যাপ্ত পানির অভাবে ত্বক উজ্জ্বলতা হারিয়ে নিস্প্রাণ হয়ে যায়।

ত্বক সুন্দর প্রাণবন্ত রেখে পুরো রোজায়ও থাকা যাবে সজীব আর সুন্দর। জেনে নিন সেই সহজ উপায়গুলো:

# পানিশূন্য ত্বকে নিয়মিত কাঠবাদাম বাটা, ঠাণ্ডা দুধ এবং গোলাপ জল দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে ত্বককে রাখবে উজ্জ্বল।

# সপ্তাহে ৩ দিন কাঁচা হলুদ ও চন্দন গুঁড়ার সঙ্গে গোলাপ জল মিশিয়ে পেষ্ট তৈরি করে ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করে ঈদের আগেই ত্বক হবে দাগহীন মসৃণ।

# সপ্তাহে ২দিন সমপরিমাণ কমলার খোসা, বেসন ও চালের গুঁড়া দিয়ে প্যাক তৈরি করে ত্বকে মেখে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন।

# এছাড়া দিনের বড় একটা সময় রান্নার কাজে ব্যয় হয়। কাজের ফাঁকে সেরে নিতে পারেন প্রতিদিনের সৌন্দর্যচর্চাও।

রোজায় খাবারের বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। ইফতার থেকে সেহরির সময়ের মধ্যে পর্যপ্ত পানি, শরবত ও টাটকা ফল খান।

তবেই আপনি থাকবেন সতেজ, প্রাণবন্ত।

তাছাড়া:

শীতের দিনে সকাল বেলা সবারই চেহারাটা মলিন আর বিবর্ণ দেখায়। অন্য যে কোন মৌসুমের চাইতে অনেক বেশি! এই বিবর্ণ আর মলিন চেহারাকে কীভাবে করে তুলবেন সুন্দর, প্রাণবন্ত আর উজ্জ্বল? কাজটা কিন্তু মোটেও কঠিন নয়, রোজ রাতে মাত্র ২০ মিনিট ব্যয় করলে এই শীতের দিনেও রোজ সকালে আপনাকে দেখা যাবে নজরকাড়া সুন্দর। আপনি নারী হোন বা পুরুষ, এই টিপসগুলো দারুণ কাজে আসবে আপনার!

১) প্রতিদিন রাতে ব্যবহার করুন একটি বিশেষ ফেসপ্যাক। কাঁচা দুধ, মুলতানি মাটি, চন্দনের গুঁড়ো ও মধু মিশিয়ে তৈরি করে নিন এই ফেসপ্যাক, যা মানিয়ে যাবে সব রকমের ত্বকের সাথে। মুখে মেখে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

২) তারপর হালকা কুসুম গরম পানি ও ফেসওয়াশ দিয়ে মুখটা ধুয়ে ফেলুন।

৩) মুখ ভালো করে মুছে নিন। তারপর একটি ভালো নাইট ক্রিম মুখে ম্যাসাজ করে নিন। যদি নাইট ক্রিম মুখে মাখতে না চান, তবে সমপরিমাণ গ্লিসারিন ও গোলাপজল মিশিয়ে নিন একত্রে। এবং এটা মুখে ও হাতপায়ে লাগিয়ে নিন।

৪) তারপর চুলটা ভালো করে আঁচড়ে নিন। চুল আঁচড়ালে মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন হবে, নিয়মিত অভ্যাস করলে চুল হয়ে উঠবে সুস্থ ও সুন্দর।

৫) এবং সবার শেষে করুন ছোট্ট একটি কাজ। এক গ্লাস হালকা কুসুম গরম পানি নিন, সাথে ২/১ চামচ মধু মিশিয়ে পান করুন। কুসুম গরম পানি খুব দ্রুত শরীর শুষে নেবে, রাতে ঘুমাবার আগে এক গ্লাস পানি পান আপনার শরীরে পানি শুন্যতা হতে দেবে না, সকালেও চেহারা থাকবে প্রাণবন্ত। অন্যদিকে মধু মেশানো পানি আপনার মেটাবলিজম বৃদ্ধি করবে, মৌসুমি সর্দি-কাশিকেও সহসা কাছে ঘেঁষতে দেবে না।

ছোট্ট এই নিয়মেই সুন্দর থাকুন প্রতিদিন সকালে।

 

ঢাকা, ২১ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।