শাবিতে যে কারণে নিজেদের মাঝে সংঘর্ষে জড়ালো ছাত্রলীগ


Published: 2019-03-11 01:27:27 BdST, Updated: 2019-03-26 18:59:00 BdST

শাবি লাইভ : শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টরসহ আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুডকোর্ট ও পরবর্তীতে শাহপরান হলের সামনে ওই ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ ঠেকাতে গেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর জাহিদ হাসান, সহকারি প্রক্টর আবু হেনা পহিল, লেকচারার মাহাথির মোহাম্মদ বাপ্পী অাহত হন।

জানা গেছে, রোববার বিকেলে সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্ব নিয়ে শাবি ছাত্রলীগের সিনিয়র নেতা মুশফিকুর রহমান জিয়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেনের অনুসারীদের মধ্যে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। মূলত র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ তুলে ওই সংঘর্ষের সূত্রপাত। প্রথমে শাখাওয়াত হোসেনের অনুসারীরা চেতনা ৭১ ও ফুডকোর্টে মুশফিকুর রহমান জিয়ার অনুসারি সোহেল রানা ও সুমন বাপ্পীকে মারধর করে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে শাহপরান হলেও সংঘর্ষ হয়। এসময় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষকসহ অন্তত পনেরজন আহত হয়। এর মধ্যে মুশফিক গ্রুপের পাঁচজন ও শাখাওয়াত গ্রুপের সাতজন আহত হয়েছে বলে দাবি করে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় শাহপরান হলের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ছাত্রলীগ নেতা মুশফিকুর রহমান জিয়া বলেন, শাখাওয়াতের অনুসারীরা আমার অনুসারীদের মারধোর করলে ঘটনাটি এতোদুর গড়ায়।

ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন বলেন, আমার এক কর্মীকে আগের দিন তারা র‌্যাগ দেয়। র‌্যাগিংয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজকের এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে আমার মোট সাতজন কর্মী আহত হয়েছে। এর মধ্যে গুরুতর আহত আব্দুল বারী সজীব ও রেজাউল করিম তানভীর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

সংঘর্ষের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর জাহিদ হাসান।

ঢাকা, ১১ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।