সিকৃবি: "তরুণরাই বাংলাদেশের মূল শক্তি"


Published: 2019-01-06 19:42:31 BdST, Updated: 2019-01-19 19:25:27 BdST

সিকৃবি লাইভ: সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) ভিসি প্রফেসর ড. মো: মতিয়ার রহমান হাওলাদার বলেছেন, “তরুণরাই বাংলাদেশের মূল শক্তি। তাদের হাত ধরেই দেশে উন্নয়ন ও সফলতা এসেছে।”

সিকৃবির ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি আরো বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় এদেশে খাদ্য ঘাটতি থাকলেও কৃষিবিদদের কল্যাণে বর্তমানে বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এমনকি আমরা আমাদের উদ্ধৃত খাদ্যশস্যসহ মাছ, পোল্ট্রি ইত্যাদি দেশের বাইরে রপ্তানি করছি।

রবিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন মাঠে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক লেভেল ১, সেমিস্টার ১ এ ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয়। ওরিয়েন্টেশন বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক এবং ছাত্র পরামর্শ নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ সায়েম উদ্দিন আহম্মদের সভাপতিত্বে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ডিন কাউন্সিলের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মো: আবুল কাশেম, রেজিস্টার মো: বদরুল ইসলাম, প্রভোস্ট কাউন্সিলের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. জীতেন্দ্র নাথ অধিকারী, প্রক্টর প্রফেসর ড. মৃত্যুঞ্জয় কুন্ড।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়। ৯.৫০ মিনিটে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত, গীতা ও ত্রিপিটক পাঠের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। সদ্য ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের রুবাইয়াত-ই-জান্নাত এবং কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরি অনুষদের ফারহান রাকিব সরকার অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও বর্তমানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের পক্ষে নবীন শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানান ছাত্রলীগের আবদুস সামাদ আজাদ হলের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন এবং সিকৃবি ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অনিক দেবনাথ।

এদিকে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীদের জন্য ”স্টুডেন্ট ডাটাবেজ” উদ্বোধন করা হয়েছে। ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানের ফাঁকে এই ডাটাবেজ উদ্বোধন করেন ভিসি প্রফেসর ড. মো: মতিয়ার রহমান হাওলাদার।

 


ঢাকা, ০৬ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।