অভাবের মাঝেও বুয়েটে চান্স পাওয়ার গল্প, পড়াশোনা অনিশ্চিত


Published: 2017-11-06 12:58:42 BdST, Updated: 2017-11-21 21:42:17 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার নিভৃত পল্লীতে জন্ম ইয়ামিন হোসেনের। টানাটানির সংসারে থেকে কোনমতে পড়াশোনা চালিয়েছেন তিনি। বাবা ক্ষুদ্র তাঁত ব্যবসায়ী। মা গৃহিনী। সব মিলিয়ে নয়জনের সংসারে অভাব ওদের নিত্যসঙ্গী।

ভাত জোগানোই যেখানে কঠিন, সেখানে পড়াশোনা হয়তো কিছুটা বিলাসিতাই। তুবও সেই বিলাসিতা করে পড়াশোনা চালিয়ে গেছেন ইয়ামিন। এবার তিনি চান্স পেয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল এমনকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও। কিন্তু অর্থের অভাবে তার ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। তার ইচ্ছা বুয়েটে পড়াশোনা করা। কিন্তু অর্থের অভাবে তার স্বপ্ন ফিকে হয়ে আসছে।

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার মুকুন্দগাতী গ্রামের মেধাবী শিক্ষার্থী ইয়ামিন হোসেন (১৮)। ভর্তি ও উচ্চশিক্ষা গ্রহণের খরচ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন তিনি। ছয় ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি তৃতীয়। বাবা সাইফুল ইসলাম তাতের ব্যবসা করে কোনোক্রমে সংসার চালান। মা রোকেয়া পারভীন গৃহিণী।

জানা গেছে, বেলকুচির শ্যাম কিশোর উচ্চবিদ্যালয় থেকে ২০১৫ সালে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করে ঢাকার সরকারি বিজ্ঞান কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন ইয়ামিন। কিন্তু আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে ঢাকায় পড়ালেখা চালাতে না পেরে ফিরে আসেন নিজ গ্রামের বেলকুচি কলেজে। সেখানে বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ করে দেওয়া হয় তাকে।

ইয়ামিন বলেন, মামা শফিকুল ইসলামের আশা ছিল, আমি বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হব। তাই সেটিই লক্ষ্য ঠিক করেছিলাম। এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাওয়ার পর ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য ঢাকায় আসি। এর জন্য মামা ৩০ হাজার টাকা ঋণও করেন।

ভর্তি পরীক্ষায় মেধাতালিকায় মেডিকেলে ৩১২০, বুয়েটে ৮০৬ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটে ৮৯০ স্থান অধিকার করেছেন ইয়ামিন। বুয়েটে ভর্তি হওয়াই তার ইচ্ছে। ৯ নভেম্বর বুয়েটে ভর্তির জন্য স্বাস্থ্য পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ১১ নভেম্বর ভর্তি হওয়ার জন্য তারিখ দেয়া হয়েছে। কিন্তু ইয়ামিনের কাছে ভর্তির জন্য কোনো টাকা নেই।

ইয়ামিনের বাবা সাইফুল ইসলাম বলেন, তাঁতের ব্যবসা খারাপ হওয়ায় তার ২০টি তাঁতের মধ্যে ১৮টিই বন্ধ হয়ে গেছে। সংসার চালানোই কঠিন হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, ছেলের ভর্তির জন্য টাকা দেওয়ার মতো পরিস্থিতি আমার নাই। ছেলের পড়াশোনার খরচ চালাতে সমাজের বিবেকবানদের কাছে সাহায্য চেয়েছেন তিনি।

 

ইয়ামিন হোসেনকে সহায়তা করতে চাইলে:
বিকাশ নম্বর: ০১৯৬৯৩৭৩৫৮৭
ডাচ্‌-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং নম্বর: ০১৯৬৯৩৭৩৫৮৭-১


ঢাকা, ০৬ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।