প্রথম বিসিএসেই দেশসেরা হয়ে ওঠার গল্প কামালের


Published: 2017-11-04 01:15:22 BdST, Updated: 2017-11-18 12:21:04 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলায় জন্ম মোহাম্মদ কামাল হোসেনের। উত্তর আলগী গ্রামের ওই ছেলেটি এখন দেশসেরা হয়েছেন। ৩৬তম বিসিএসে পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ক্যাডারে মেধায় প্রথম হয়েছেন তিনি। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রটি এখন চাঁদপুরের গর্ব। পরিসংখ্যার বিভাগের তৃতীয় ব্যাচের ছাত্র মোহাম্মদ কামাল হোসেন। জীবনের প্রথম বিসিএস দিয়েই তিনি এমন সাফল্য অর্জন করেছেন।

এব্যাপারে মোহাম্মদ কামাল হোসেন বলেন, লেগে ছিলাম ভালো ফল হবে এ আশায়। পড়াশোনার পথটা সহজ ছিল না।

অনার্সে জিপিএ ৩ দশমিক শূন্য ৩ ও মাস্টার্সে ৩ দশমিক ৪৭ পেয়েছেন মোহাম্মদ কামাল হোসেন। তিনি বলেন, মূলত অনার্সের পর থেকে বিসিএসের পড়াশোনা শুরু করেছি। এরপর নিয়মিত পড়েছি। মনে হয়েছে, ভালো করে পড়লে একটা ভালো ফল আসবেই।

তিনি বলেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে সীমিত সুযোগ-সুবিধা। তারপরও ভালো ফল করেছি বলে বেশ ভালো লাগছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও সহপাঠীদের কিছুটা হলেও সম্মানিত করতে পেরেছি।

জানা গেছে, মোহাম্মদ কামাল হোসেন ২০০৪ সালে আলগী সিনিয়র মাদ্রাসা থেকে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়ে দাখিল পাস করেন এবং ওই সালে হাইমচর উপজেলা পর্যায়ে এটাই ছিলো সেরা ফলাফল। পরে তিনি ২০০৬ সালে চাঁদপুর পুরাণ বাজার ডিগ্রি কলেজ থেকে মানবিক বিভাগে সর্বোচ্চ ফলাফল অর্জন করে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন তিনি। সবশেষ তিনি ৩৬তম বিসিএস এ পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ক্যাডারে প্রথম স্থান অধিকার করেন। কামাল হোসেন হাইমচর উপজেলার উত্তর আলগী গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আব্দুল কাদির ও মারুফা বেগমের ছেলে।

লেগে থাকলে সবকিছুই সম্ভব বলে মনে করেন ওই স্বপ্নজয়ী। তার মতে পরিশ্রম আর ধৈর্য্যের কাছে অবশ্যই স্বপ্ন ধরা দেবেই।


ঢাকা, ০৪ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।