দিনমজুরির টাকায় জাবি ও রাবিতে চান্স পাওয়ার গল্প


Published: 2018-11-04 02:16:08 BdST, Updated: 2018-11-14 11:15:49 BdST

নাটোর লাইভ : শাকিল আহমেদ। অভাবের সংসারে বেড়ে ওঠা এই অদম্য মেধাবী দিনমজুরি করে যে টাকায় ভর্তি ফরম কিনে রাজশাহী ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছেন। তবে ভর্তি হতে পারছেন না তিনি। কারণ ভর্তি ফরম আর যাতায়াত খরচেই তার সব টাকা শেষ হয়ে গেছে। ভর্তির টাকা না থাকায় অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছেন তিনি।

শাকিলের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এ ইউনিটে মেধা তালিকা-১৯৭ এবং জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সি-ইউনিটে মেধা তালিকা-১৬১ এবং আই-ইউনিটে ১০৬। গত বছরও রংপুর রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছিলেন তবে অর্থের অভাবে ভর্তি হতে পারেননি। এবারও অর্থের যোগান কোথা থেকে আসবে জানেন না শাকিল।

জানা গেছে, শাকিল নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নের দোগাছী গ্রামের দরিদ্র শহিদুল ইসলামে ছেলে। মাত্র সাত মাস বয়সে পারিবারিক বিরোধে শাকিলকে ফেলে মা সেলিনা বেগম বাবার বাড়ি চলে যান। বাবা শহিদুল ইসলাম দ্বিতীয় বিয়ে করলেও সৎ মা শাকিলকে মেনে না নেয়ায় তার ঠাঁই হয় দাদী সফুরার ঘরে। দাদী অন্যের বাড়িতে কাজ করে নাতীকে বড় করে তুলেন। শাকিলকে ভর্তি করেন স্কুলে। হাইস্কুলে ভর্তির পর থেকেই শাকিল ছুটির দিনসহ স্কুলের ফাঁকে ফাঁকে অন্যের জমিতে শ্রমিকের কাজ শুরু করেন। এভাবে তার ও দাদীর আয়ে কোন মতে সংসার ও লেখাপড়া চলেছে শাকিলের। এবার অর্থাভাবে উচ্চ শিক্ষার স্বপ্ন ফিকে হওয়ার উপক্রম হয়েছে তার।

শাকিল আহমেদ বলেন, ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছে থেকে বিজ্ঞান বিভাগে পড়েছি। অর্থের অনিশ্চয়তা দেখে এবার মানবিকের বিষয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছি। ভেবেছিলাম পড়ার পাশাপশি কাজ করে পড়ার খরচটা চালাতে পারবো। কিন্তু এখন ভর্তির টাকাটাই জোগাড় করতে পারছি না। সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই ভর্তি হতে হবে। বিষয়টা নিয়ে খুব মানসিক যন্ত্রনায় আছি।

খলিশাডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আনম ফরিদুজ্জামান বলেন, শাকিল খুবই মেধাবী ছাত্র। আমার কলেজে পড়ার সময় ফ্রি প্রাইভেট পড়াসহ অন্যান্য সুবিধা দিয়ে সহযোগিতা করেছি। এখন সে ভর্তির সুযোগ পেলে ভাল কিছু করতে পারবে বলে আমার বিশ্বাস।

শাকিলকে কেউ সাহায্য করতে চাইলে ০১৭৮৮-২৩৯০৪১ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

ঢাকা, ০৪ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।