যে কারণে সেরা হলো বাংলাদেশি তিন ক্রিকেটার


Published: 2018-12-25 21:11:37 BdST, Updated: 2019-07-21 15:28:09 BdST

স্পোর্টস লাইভ: বাংলাদেশ দলের ২০১৮ সালের সেরা তিন ক্রিকেটার হচ্ছেন, টেস্ট ও টি টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন তামিম ইকবাল এবং তৃতীয় অবস্থানে আছেন মুশফিকুর রহিম।

সাফল্য ব্যর্থতা দুই মিলেই কেটেছে টাইগারদের ২০১৮ সাল। বছর শেষে ব্যক্তিগত পুরস্কার পাওয়ার দিক দিয়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন এই তিন ক্রিকেটার।

সাকিব আল হাসান: ২০১৮ সালে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ ও ম্যান অফ দ্য সিরিজ পুরস্কার মিলে মোট ৬টি পুরস্কার পেয়েছেন সাকিব। বছরের প্রথম পুরস্কার পান জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে । বল হাতে ৪৩ রানে ৩ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে ৩৭ রান করে ম্যাচ সেরা হন সাকিব।

পরবর্তী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্যাট হাতে করেন ৬৭ রান ও বল হাতে ৪৭ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট, যার ফলে ত্রিদেশীয় সিরিজের ২য় ম্যাচেও ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেন সাকিব। পরবর্তী পুরস্কার পান উইন্ডিজের বিপক্ষে আগস্ট মাসের টি টোয়েন্টি সিরিজে, সিরিজে ৩ ম্যাচে মোট ১০৩ রান ও ৩ উইকেট নিয়ে সিরিজ সেরা হন সাকিব।

ইনজুরি থেকে ফিরে ঘরের মাঠে উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে আবারো সিরিজ সেরার পুরস্কার জিতেন সাকিব, ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ব্যাট হাতে ১১৫ রান করেন ও বল হাতে নেন ৯ উইকেট। টি টোয়েন্টি সিরিজের ২য় ম্যাচে বল হাতে ২০ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট ও ব্যাট হাতে অপরাজিত থাকেন ৪২ রানে যা তাকে এনে দেয় আরেকটি ম্যাচ সেরার পুরস্কার। বছরের শেষ পুরস্কার জিতেন টি টোয়েন্টি সিরিজে সেরা হয়ে। ৩ ম্যাচ টি টোয়েন্টি সিরিজে ১০৩ রানের পাশাপাশি ৮ উইকেটও নেন। সমান ৩টি করে ম্যাচ ও সিরিজ সেরার পুরস্কার পেয়ে বছর শেষ করেন সাকিব।

তামিম ইকবাল: সাকিবের পর দ্বিতীয় স্থানে আছেন তামিম। ম্যাচ ও সিরিজ সেরার পুরস্কার মিলে মোট ৫টি ব্যক্তিগত পুরস্কার পেয়েছেন তামিম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে দ্বিতীয় দেখায় ৭৪ রান করে ম্যাচ সেরা হন তামিম। যা ছিলো তার বছরের প্রথম পুরস্কার। জুলাইয়ে উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ও তৃতীয় ওয়ানডেতে করেন দুটি অনবদ্য শতক।

দুটি ওয়ানডেতেই তামিম ম্যাচ সেরা হন ও সেই ওয়ানডে সিরিজে মোট ২৮৭ রান করার সুবাদে সিরিজ সেরার পুরস্কারও পান তামিম। বছরের শেষ ব্যক্তিগত পুরস্কার পান তামিম উইন্ডিজের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি সিরিজে। ফ্লোরিডায় সিরিজের ২য় টি টোয়েন্টিতে ৭৪ রান করে ম্যাচ সেরা হন তামিম।

মুশফিকুর রহিম: তৃতীয় স্থানে আছেন মুশফিকুর রহিম। মোট চারটি ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেন মুশফিক। নিদাহাস ট্রফিতে ৭২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, যা তাকে এনে দেয় বছরের প্রথম ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৪৪ রানের ইনিংস ও পাকিস্তানের বিপক্ষে ৯৯ করে বছরে তার দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান মুশফিক। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে ২১৯ রানের অপরাজিত ইনিংস তাকে এনে দেয় বছরের তার শেষ ম্যাচ সেরার পুরস্কার। মুশফিকই একমাত্র বাংলাদেশি খেলোয়াড় যে ২০১৮ সালে ৩ ফরম্যাটেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার পেয়েছেন।

 

 

 

ঢাকা, ২৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।