স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে মঙ্গলবার


Published: 2018-01-11 22:02:14 BdST, Updated: 2018-01-16 23:11:35 BdST

 

স্পোর্টস লাইভ: স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে আগামী মঙ্গলবার। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ১২ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে এই টুর্নামেন্ট। এবারের স্বাধীনতা কাপে থাকছেন না বিদেশি খেলোয়াড়। মৌসুমের শেষ টুর্নামেন্টে স্থানীয় ফুটবলাররা পাচ্ছেন নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের সুযোগ।

২০১৬ সালে এপ্রিল-মে মাসে অনুষ্ঠিত হয়েছিল স্বাধীনতা কাপ টুর্নামেন্টের সর্বশেষ খেলা। এটি ছিল মৌসুমসূচক টুর্নামেন্ট। আর এবার মৌসুম সমাপ্তি হবে এই টুর্নামেন্টের দ্বারা। প্রথমবারের মতো শক্তিশালী দল গঠন করা চট্টগ্রাম আবাহনী ঘরে তুলেছিল আগের মৌসুমের স্বাধীনতা কাপের ট্রফি। ঘরোয়া ফুটবলে সেটিই চট্টগ্রাম আবাহনীর একমাত্র শিরোপা।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ শেষ হবে ১৩ জানুয়ারি। লিগের পর মাত্র ২ দিন বিরতি পাচ্ছে ক্লাবগুলো। বৃহস্পতিবার বাফুফে ভবনে স্বাধীনতা কাপের ড্র এবং পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন করেছে প্রফেশনাল লিগ কমিটি। ৬০ লাখ টাকা বাজেটের এ টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন দল প্রাইজমানি পাবে ৫ লাখ ও রানার্সআপ ৩ লাখ টাকা।

এ ছাড়া অংশগ্রহণ বাবদ দলগুলোকে দেয়া হবে ২ লাখ টাকা করে। ফেয়ার প্লে ট্রফি থাকছে, থাকছে ম্যান অব দ্য ম্যাচ, ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট ও সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার।

গতবারের লিগের পয়েন্ট টেবিলের অবস্থান ধরে দলগুলোকে সিডিং করে চারটি গ্রুপে ফেলা হয়। গতবারের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী পড়েছে ‘ডি’ গ্রুপে। যাদের প্রতিপক্ষ আরামবাগ ও প্রিমিয়ারের নবাগত সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। বর্তমান রানার্সআপ আবাহনীর সঙ্গে ‘সি’ গ্রুপে আছে শেখ রাসেল ও বিজেএমসি। ‘এ’ গ্রুপে মোহামেডান ও শেখ জামালের সঙ্গে রহমতঞ্জ ও ‘বি’ গ্রুপে ব্রাদার্স, মুক্তিযোদ্ধা ও ফরাশগঞ্জ।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রতিদিন দুটি করে ম্যাচ হবে। গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলগুলো উঠবে কোয়ার্টার ফাইনালে। ফাইনালে হবে ফেব্রুয়ারি প্রথম সপ্তাহে। এ মাসেই সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের এএফসি কাপের প্লে-অফ কোয়ালিফাইংয়ের প্রথম ম্যাচ। ২৩ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টের সঙ্গে হোম ম্যাচ সাইফের, অ্যাওয়ে ম্যাচ ৩০ জানুয়ারি মালেতে। এ দুটি ম্যাচের জন্য টুর্নামেন্টে বিরতি পড়বে দুই বার।

ড্র অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ সভাপতি এবং প্রফেশনাল লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘স্বাধীনতা কাপ বলেই আমরা এ টুর্নামেন্টে বিদেশি খেলোয়াড় রাখছি না। এতে আমাদের স্থানীয়রাও বেশি খেলার সুযোগ পাবে। এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে নিজেদের প্রমাণও করতে পারবেন আমাদের ফুটবলাররা।’

গ্রুপিং

‘এ’ গ্রুপ : শেখ জামাল, মোহামেডান, রহমতগঞ্জ।

‘বি’ গ্রুপ : ব্রাদার্স, মুক্তিযোদ্ধা, ফরাশগঞ্জ।

‘সি’ গ্রুপ : আবাহনী, শেখ রাসেল, বিজেএমসি।

‘ডি’ গ্রুপ : চট্টগ্রাম আবাহনী, আরামবাগ, সাইফ এসসি।

 

 

 

ঢাকা, ১১ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।