বিশ্বকাপের দৌড়ে এগিয়ে আমাদের সাকিব


Published: 2019-06-18 22:03:47 BdST, Updated: 2019-07-24 07:21:43 BdST

স্পোর্টস লাইভঃ সাকিব আল হাসান। একটি নাম একটি ইতিহাস। সুপার ম্যান তিনি। যার অনেকটাই তুলনা নেই। মেধা আর প্রতিভা ছাড়াও তিনি একজন আপাতমস্তক পেশাদার। বিশ্বকাপের তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা শেষে এক দল চ্যাম্পিয়ন হবে- এটাই তো নিয়ম। কিন্তু এই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ের মধ্যেও একটা লড়াই প্রবল হয়ে ওঠে বিশ্বসেরা খেলোয়াড়দের মধ্যে। ক্রিকেট বিশ্বকাপও তার ব্যতিক্রম নয়। বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হওয়ার লড়াইটা আলাদা।

আর ওই লড়াইয়ে নাম জস কামিয়েছেন একজন। খেলোয়াড়দের মধ্যেই নয়, বিশ্বকাপে সেরা কে হবেন, এটা নিয়ে আলোচনা চলে ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যেও। এবারের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার পর থেকেই এ লড়াই জমে উঠেছে প্রবলভাবে। ক্রিকেট বিশ্বে সবচেয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যেও এটা একটা আলোচিত বিষয়।

আর এই সব আলোচনায় সাবেক কিংবা বর্তমান- প্রতিটি দেশের ক্রিকেটাররাও যোগ দিয়েছেন। যেমন- একদিন আগেই ভারতের সদ্য সাবেক হওয়া ক্রিকেটার, যিনি তিনটি বিশ্বকাপে (অনূর্ধ্ব-১৯, টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে বিশ্বকাপ) ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন- সেই যুবরাজ সিং বলেন, এবারের বিশ্বকাপে টুর্নামেন্ট সেরা হবেন ভারতের রোহিত শর্মা। পাকিস্তানের বিপক্ষে রোহিত ১৪০ রান করার পর এ মন্তব্য করেন যুবরাজ।

তবে কেবল আলোচনা নয়। এ দিয়ে তো বিশ্বকাপের সেরা নির্বাচন হবে না। সেরা নির্বাচন হবে মাঠের পারফরম্যান্স দিয়ে। এখন পর্যন্ত মাঠের পারফরম্যান্সে সবচেয়ে এগিয়ে কিন্তু আর কেউ নয়, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার, বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান এবার জস কামিয়েছেন।

আর আইসিসিই শুরু থেকে রেটিংয়ের মাধ্যমে এই মুহূর্ত পর্যন্ত সেরা খেলোয়াড় কে সেটা নির্ধারণ করে রেখেছে। সেই রেটিং (দ্য আইসিসি ড্রিম ইলেভেন, ফ্যান্টাসি টপ ফাইভ) অনুসারে সবার শীর্ষে রয়েছেন সাকিব আল হাসানই। এখন পর্যন্ত সাকিবের স্কোর ২৯৮.৫। ৫ ম্যাচের মধ্যে চার ম্যাচ খেলতে পেরেছেন সাকিব।

তাতে ৩৮৪ রান নিয়ে সবার উপরে তিনি। গড় ১২৮। সেঞ্চুরি দুটি। হাফসেঞ্চুরি দুটি। সর্বোচ্চ ১২৪* রান। বল হাতেও তিনি রয়েছেন দারুণ ফর্মে। এখন পর্যন্ত তার ঝুলিতে রয়েছে ৫ উইকেট। রেটিং পয়েন্ট তারই বেশি হওয়ার কথা। সাকিবের পরই ২৪৬.৫ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চ। ৫ ম্যাচে ৫ ইনিংস ব্যাট করে ৩৪৩ রান করেছেন অসি অধিনায়ক। তবে সাকিবের সুবিধা হলো, ফিঞ্চ বোলিং করছেন না।

এই খেলায় টপ ফাইভ ফ্যান্টাসিতে তিন নম্বরে রয়েছেন ইংল্যান্ডের জো রুট। ৫ ম্যাচের ৫ ইনিংসে তিনি করেছেন ৩২০ রান। রেটিং স্কোর ২২০। চার নম্বরে রয়েছেন ভারতের রোহিত শর্মা। তার পয়েন্ট ২০০.৫। তিন ম্যাচে ব্যাট করে তার সংগ্রহ ৩১৯ রান।

১৯২ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার মিচেল স্টার্ক। ৫ ম্যাচে ১৩ উইকেট নিয়ে মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন তিনি। সাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী যারা, তাদের তুলনায় বাংলাদেশের বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার এগিয়ে থাকবেন সবচেয়ে বেশি।

একটাই কারণ, তিনি ব্যাটিং এবং বোলিং- দুই বিভাগেই অবদান রাখছেন। অন্যরা কেউ ব্যাটিংয়ে কিংবা কেউ বোলিংয়ে অবদান রাখছেন। এই ধারাবাহিকতায় শেষ পর্যন্ত যেতে পারলে, টুর্নামেন্ট শেষে সাকিব আল হাসানই হবেন বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়- এতে কোনো সন্দেহ নেই। তাই এবার তার কপালেই আছে অনেক কিছু।

সাকিব আল হাসানের জন্যে শুভ কামনা।


ঢাকা, ১৮ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।