রাবি’তে দশম সমাবর্তন মার্চে


Published: 2018-01-21 09:18:05 BdST, Updated: 2018-10-18 03:25:17 BdST

রাবি লাইভ: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) স্থগিত হওয়া দশম সমাবর্তন মার্চ মাসে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে সমাবর্তন আয়োজনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। নিবন্ধনে বাদ পড়া গ্র্যাজুয়েটদের অংশগ্রহণের জন্য ২৩ জানুয়ারি থেকে নিবন্ধন শুরু হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক প্রফেসর প্রভাষ কুমার কর্মকার জানান, ‘সমাবর্তন আয়োজনের সব প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি সমাবর্তনে অংশগ্রহণের তারিখ নিশ্চিত করলে সে অনুযায়ী সমাবর্তনের বক্তা নির্ধারণ করা হবে।’

প্রফেসর প্রভাষ কুমার জানান, দশম সমাবর্তনে অংশগ্রহণকারীদের জন্য ২৩ জানুয়ারি থেকে আবারও নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু হবে এবং চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। ২০১১ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সময়ে পিএইচডি, এমফিল, স্নাতকোত্তর এবং এমবিবিএস, বিডিএস ও ডিভিএম ডিগ্রি অর্জনকারীরা এতে অংশ নিতে পারবেন।

তিনি আরো জানান, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ৩ হাজার ৫৭০ টাকা জমা দিয়ে অনলাইনে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। নিবন্ধন প্রক্রিয়াসহ বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www. ru. ac. bd) পাওয়া যাবে। ইতোমধ্যে যারা নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন তাদের আর নতুন করে নিবন্ধন করতে হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা বলেন, সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করার জন্য রাষ্ট্রপতির সময় চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আমরা আবেদন করেছি। আমরা চেয়েছি সময়টা মার্চে হলে ভালো হয়। দ্রুতই তারিখ নিশ্চিত হবে বলে আশা করছি।

তিনি আরো জানান, গত প্রশাসনের আমলে গঠিত কমিটি কিছুটা সংযোজন-বিয়োজন করে নতুন কমিটি করা হয়েছে। দুই-একদিনের মধ্যে এই কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ২০১৬ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দশম সমাবর্তন আয়োজনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ওই বছরের ৩ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিবন্ধন প্রক্রিয়া চলে। সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য ২০১১ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সময়ে পিএইচডি, এমফিল, স্নাতকোত্তর এবং এমবিবিএস, বিডিএস ও ডিভিএম ডিগ্রি অর্জনকারী প্রায় পাঁচ হাজার শিক্ষার্থী নিবন্ধন করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৮ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২০০৬ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত স্নাতকোত্তর, এমবিবিএস, বিডিএস, এমফিল ও পিএইচডি কোর্সের ৪ হাজার ৭৭১ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

 


ঢাকা, ২১ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।