''করোনা সমাজে সহানুভূতি শিখিয়েছে''


Published: 2020-04-23 13:05:01 BdST, Updated: 2020-05-28 20:01:34 BdST

শোবিজ লাইভ: কোভিড-১৯ মানুষকে সহানুভূতিশীল করেছে। মানুষের প্রতি মানুষের মমত্ববোধ বাড়িয়েছে। মানুষ মানুষের জন্যে এই কথাটি আবারও প্রমানিত করেছে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সমাজের মানুষদের আরো অনেক বেশি দায়িত্বশীল করে তুলেছে বলে মনে করেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক অনলাইন ক্লাসে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিভিন্ন পরামর্শ দেন কোহালি ও তার স্ত্রী আনুশকা শর্মা। তারা বলেন আমাদের দায়িত্ব আরো বাড়াতে হবে। সমাজে দরদী মন নিয়ে চলাফেরা করতে হবে।

এই প্রাণঘাতি ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সকলকে চ্যালেঞ্জ নিতে বললেন কোহালি ও আনুশকা। আলাপকালে কোহলি বলেন, এই সংকটের মধ্যে ইতিবাচক দিক হচ্ছে যে, সামাজিক ভাবে আমরা অনেক বেশি সহানুভূতিশীল হয়ে উঠেছি।

এই করোনা যুদ্ধে যারা লড়াই করছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তা সে পুলিশের প্রতিই হোক বা ডাক্তার-নার্সরাই হোক। আশা করব, করোনা-সংকট কেটে যাওয়ার পরও সেই কৃতজ্ঞতা থাকবে। এটা ধরে রাখতে হবে।

হর রোজ চলছে বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর মিছিল। আক্রান্ত হচ্ছে রাখ লাখ বনি আদম। ইতোমধ্যে ১ লাখ ৭৭ হারের বেশি মানুষ মারা গেছে। মানুষের জীবন অনিশ্চিত জানিয়ে কোহলি বলেন, জীবন হল অনিশ্চিত। তাই, যাতে আনন্দ পাওয়া যায়, সেটাই করা উচিত। সব সময় সবকিছু নিয়ে তুলনা করা উচিত নয়। তাহলেই জীবন বদলে যাবে। বদলাতে হবে মন আর মানসিকতা।
এদিকে কোহলির মত আনুশকাও সকলের সামনে নিজের অভিমত তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সবার কাছে এই পরিস্থিতি শিক্ষার বিষয়। কারণ ছাড়া কিছুই ঘটে না। যদি সামনের সারিতে কেউ কাজ না করতেন, তবে আমরা কিছুই পেতাম না।

মানুষদেরকে এটা বোঝাচ্ছে যে সবাই সমান। কেউ স্পেশাল না। স্বাস্থ্যই হল সব কিছু। সামাজিকভাবে আমরা এখন অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ। সারা দুনিয়ার সকলকে একথাটি বার বার স্মরণ করিয়ে দিতে হবে। এই প্রত্যয় নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে সকলকে।

ঢাকা, ২৩ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআইটি

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।