গোপনে বিয়ে: কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার


Published: 2020-03-05 15:19:02 BdST, Updated: 2020-03-30 19:05:33 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ রাজধানীর বাসাবো এলাকার একটি বাসার মধ্যে থেকে রাবেয়া আক্তার মৌসুমী (২১) নামের এক কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

জানা গেছে, মৃত ওই তরুণী পটুয়াখালী দশমিনা উপজেলার পূর্ব আলীপুর গ্রামের ইউনুসের মেয়ে। তিনি পরিবারের সাথেই কদমতলা পূর্ব বাসাবোতে একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। ঢাকা মহানগর মহিলা কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে নিহতের ভগ্নিপতি ফিরোজ আহমেদ বলেন, দুই-ভাইবোনের মধ্যে মৌসুমী ছিলেন ছোট। ফুপাতো ভাই বিল্লালের সঙ্গে মৌসুমীর ৩/৪ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে বছর খানেক আগে মৌসুমীর সম্মতিতেই এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বিয়ের কথা হয়। এই ছেলের সঙ্গে মোবাইল ফোনেও কথা হতো মৌসুমীর। এ ঘটনার পরে বিল্লালের সঙ্গে তার আর কোনো প্রকার যোগাযোগ ছিল না। কিন্তু ৩ মাস আগে বিল্লাল মৌসুমীকে বিয়ে করেছেন এমন দাবি জানিয়ে কাগজপত্র দেখায়।

ফিরোজ আরও বলেন, ওই বিষয়টি নিয়েই বুধবার দিবাগত রাতে মা হালিমা বেগম মৌসুমীকে বকাঝকা করেন। পরে রাত ১১টার দিকে মৌসুমী পাশের কক্ষে গিয়ে দরজা বন্ধ করে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে দেয়। পরে পরিবারের লোকজন তার মরদেহ ঝুলতে দেখে থানায় সংবাদ দেয়। সংবাদ পেয়েই পুলিশ বৃহস্পতিবার তার মরদেহ সেখান থেকে উদ্ধার করে।

মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদনে সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক মো. মোফাজ্জল হোসেন উল্লেখ করেন যে, মৌসুমী পরিবারের কাউকে কিছু না জানিয়ে গত ৩ মাস আগেই তার দূর সম্পর্কের এক ফুপাতো ভাই বিল্লালকে বিয়ে করেন। এই বিষয়টি বুধবার পরিবারের লোকজনের কাছে জানাজানি হওয়ার পর তার মা মৌসুমীকে বকাঝকা করেন। পরে মৌসুমী রুমের দরজা আটকে দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।

ঢাকা, ০৫ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।