চুটিয়ে প্রেম করে গোপনে অন্যত্র বিয়ে বয়ফ্রেন্ডের, ছাত্রীর আত্মহত্যা!


Published: 2019-12-03 01:10:27 BdST, Updated: 2019-12-06 06:38:21 BdST

নড়াইল লাইভ : প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিলেও বয়ফ্রেন্ডের প্রতারণার কারণে প্রাণ দিয়েছেন এক ছাত্রী। গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ওই ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে নড়াইরের কালিয়ায়। মৃত্যুর আগে ওই ছাত্রীর লেখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। হিরা খানম নামে ওই ছাত্রী কলাবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১০ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করতো। এঘটনায় প্রতারক বয়ফ্রেন্ড পুলিশ কন্সটেবল মো.তুরান আলীর বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে ওই ছাত্রীর বাবা রোববার (১ডিসেম্বর) রাতে নড়াগাতি থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, কলাবাড়ীয়া গ্রামের মো.ফরিদ শেখের মেয়ে হিরা খানমের সঙ্গে পাশের গ্রাম আইজপাড়ার তুরান শেখের দীর্ঘ ২বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক বছর আগে তুরান পুলিশের চাকরি পায়। চাকরির পর হিরার পরিবার তুরানের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি হয়। তবে তুরান বিয়ে নিয়ে তালবাহানা শুরু করে। একপর্যায়ে গোপনে তুরান বিয়ে করে ফেলে। বিয়ের বিষয়টি জানাজানি হলে ওই ছাত্রী তুরানের মা হোসনেয়ারা বেগমের কাছে যায়। এসময় ওই ছাত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করা হয়। পরে হিরা ঘরে এসে শুক্রবার রাতে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। মৃত্যুর আগে সে একটি চিরকুটে লিখে যায় ‘তার মৃত্যুর জন্য তার প্রেমিক তুরান শেখ দায়ী করে। তাকে যেন ক্ষমা না করা হয়।’

হিরা খানমের চাচা মো আবুল হাসান বলেন, ‘হিরার সঙ্গে তুরানের প্রেমের সম্পর্ক আমরা মেনে নিয়েছিলাম। কিন্তু তুরান কিছুদিন আগে তাদের পরিবারের কাউকে কিছু না বলে গোপনে বিয়ে করে। এ অপমান সইতে না পেরে হিরা আত্মহত্যা করে।’

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো.কামরুজ্জামান বলেন,‘ হিরার আত্মহত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঢাকা, ০৩ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।