যৌতুকের জন্য পুড়িয়ে হত্যা করা হল কলেজছাত্রীকে


Published: 2016-11-13 02:05:13 BdST, Updated: 2018-09-21 22:28:55 BdST

চট্টগ্রাম লাইভ : যৌতুকের দাবি মেটাতে না পারায় এ্যানি বিশ্বাস নামে এক কলেজ ছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। বিয়ের ৬ মাসের মাথায় এমন মর্মান্তিক পরিণতি হয়েছে ওই কলেজ ছাত্রীর। ওই ছাত্রী ইমাম গাজ্জালি কলেজে পড়াশোনা করছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাতে ওই ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় নিহতের পিতা বাদী হয়ে শাশুড়ি, ননদ ও স্বামীকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় শাশুড়িকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১২ নভেম্বর) ময়না তদন্ত শেষে ওই ছাত্রীর লাশ চট্টগ্রামের আন্দরকিল­া বলুয়ারদীঘি পাড় শ্মশানে দাহ করা হয়েছে। নিহত এ্যানি রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পশ্চিম বেতাগীর রামগতি হাট এলাকার শিবু বিশ্বাসের মেয়ে।

নিহতের মা রঞ্জু বিশ্বাস জানায়, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগীর মেয়ে এ্যানির সাথে হাটহাজারী উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের পশ্চিম শিকারপুর গ্রামের দিলীপ মহাজনের পুত্র প্রবাসী লিটন মহাজনের (৩০) এবছরের ৮ মার্চ বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাকে যৌতুকের জন্য নানাভাবে চাপ দিতে থাকে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

সম্প্রতি এ্যানির শয়নকক্ষে ঢুকে চাবি কেড়ে নিয়ে আলমারিতে থাকা বিয়ের স্বর্নালংকার ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এ্যানি স্বর্ণালংকার দিতে না চাইলে তাকে মারধর করে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে আশেপাশের প্রতিবেশিরা তাকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী পুকুর থেকে পানি ঢেলে তার গায়ের আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে প্রতিবেশীরা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করেন।

এদিকে শাশুড়ি ও ননদ বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে তার শরীরে আগুন ধরেছে বলে তার বাপের বাড়িতে মুঠোফোনে জানায়।

এ ঘটনায় এ্যানির পিতা গত ৭ নভেম্বর শাশুড়ি, ননদ ও প্রবাসী স্বামীকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ ২১ দিন পর শুক্রবার (১১ নভেম্বর) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।



ঢাকা, ১৩ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।